বাগমারাশিরোনাম

বাগমারায় জমির দখল নিয়ে সংঘর্ষ উভয় পক্ষের আহত ৫

ভ্রাম্যমান প্রতিনিধি: রাজশাহীর বাগমারায় জমির দখল নিয়ে উভয় পক্ষে মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। সংঘর্ষের ঘটনায় আহত অবস্থায় উভয় পক্ষের ৫ জনকে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে
প্রেরণ করা হয়েছে। আহতদের মধ্যে ৪ জনকে বাগমারা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এবং একজনকে রাজশাহী মেডিকেলে ভর্তি করা হয়। আহতরা হলেন, চানপাড়া মহল্লার মৃত সাইবুল্লাহর ছেলে মোহাম্মদ আলী (৫৫), একই এলাকার মৃত সাহেব আলীর ছেলে শামসুল হক (৫০), আব্দুস সামাদের স্ত্রী মাজেদা বেগম (৪২) এবং মোকলেছ এর স্ত্রী সাজেদা (৪৫)। অপরদিকে লুৎফর রহমানের স্ত্রী জরিনা বেগম (৩৮)
আহত হন। এ ঘটনায় উভয় পক্ষের লোকজন রবিবার রাতে বাগমারা থানায় পৃথক দুটি লিখিত অভিযোগ দাখিল করেছে। এর একটির বাদী হলেন আহত মোহাম্মদ আলীর ছেলে মাহাবুর রহমান এবং অন্যটির বাদী হলেন লুৎফর রহমান। উভয় পক্ষের অভিযোগে ১০-১২ জন করে বিবাদীর নাম উল্লেখ করা হয়েছে।
লিখিত অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার ভবানীগঞ্জ পৌরসভার চানপাড়া মহল্লায় পৈত্রিক সম্পত্তি দাবী করে দীর্ঘদিন থেকে মোহাম্মদ আলী এবং লুৎফর রহমানের লোকজনের মধ্যে বিরোধ চলে আসছিল। সেই বিরোধের জের ধরে ৮ মার্চ রবিবার বেলা ১১ টার দিকে নিজেদের সম্পতি দাবী করে লুৎফর রহমান লোকজন নিয়ে ওই সম্পত্তিতে ধান রোপন করেন। খবর পেয়ে মোহাম্মদ আলীর লোকজন বাধা দিতে গেলে উভয়ের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার সৃষ্টি হয়। এক পর্যায়ে তা সংঘর্ষে রুপ নেয়। এতে উভয় পক্ষে ৫ জনকে আহত অবস্থায় মেডিকেলে ভর্তি করা হয়েছে। বিষয়টি নিয়ে এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। সেই সাথে ঊভয়ের মধ্যে চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে।
ওই সম্পত্তি নিয়ে দীর্ঘ আদালতে মামলাও চলেছে। এর আগে সম্পত্তিটি নিয়ে বিচার-শালিসও হয়েছে। এক পক্ষের অভিযোগকারী মাহাবুর রহমান জানান, তার বাপ-দাদার পৈত্রিক সম্পত্তি জোর পূর্বক লুৎফর রহমানের লোকজন দখলে নিয়ে ধান রোপন করছে এমন খবর পেয়ে তারা ঘটনাস্থলে গিয়ে বাধা দেয়ার চেষ্টা করে। এতে উভয়ের মধ্যে সংঘর্ষ বাধে। এসময় তার পিতা মোহাম্মদ আলী সহ তাদের ৪ জনকে আহত অবস্থায় মেডিকেলে ভর্তি করা হয়েছে।
অন্যদিকে অপর পক্ষের বাদী লুৎফর রহমান জানান, তারাও তাদের পৈত্রিক সম্পত্তিতে ধান রোপন করছিল। সে সময় জোর পূর্বক মাহাবুর রহমান সহ তাদের লোকজন আক্রমন করে। জমির দখল ছাড়বেনা বলেই উভয়ের মধ্যে সংঘর্ষের সৃষ্টি হয়। লুৎফর রহমানের লোকজন জমিতে থাকায় বাড়িতে হামলা চালিয়ে বাড়িঘর ভাংচুর করে।
সেই সাথে লুৎফর রহমানের স্ত্রী জরিনা বেগমকে মেরে আহত করেছে।
এ ব্যাপারে বাগমারা থানার ওসি (তদন্ত) আফজাল হোসেন জানান, জমির দখল নিয়ে উভয় পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনায় বেশ কয়েকজন আহত হয়েছে। বর্তমানে তারা মেডিকেলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রয়েছে। আমি নিজে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। উভয় পক্ষ থেকে লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। বিষয়টি নিয়ে খুব দ্রুত প্রয়োজনী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলেও জানান তিনি। বরেন্দ্র বার্তা/অপস

Close