চারঘাটশিরোনাম-২

মশার অত্যাচারে অতিষ্ঠ চারঘাট পৌরবাসী

সজিব ইসলাম, চারঘাট: রাজশাহীর চারঘাটে মশার কামড়ে দুর্বিসহ হয়ে উঠেছে পৌরবাসীর জীবন। মশা নিধনের কোনো পদক্ষেপ না নেওয়ার কারণে দিন দিন বেড়েই চলেছে উৎপাত। প্রতিবছর বাজেটে পৌরসভায় মশক নিধনের জন্য বরাদ্দ থাকলেও মশা নিধনের কার্যত কোনো পদক্ষেপ লক্ষ করা যাচ্ছে না বলে পৌরবাসীর অভিযোগ।
স্থানীয়দের অভিযোগ, গত এক সপ্তাহ ধরে মশার উৎপাতে অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছে নাগরিক জীবন। ঘরে-বাইরে, স্কুল-কলেজ, অফিস অথবা চা স্টলে সর্বত্রই বিরাজ করছে এখন মশার রাজত্ব। মশার কয়েল, স্প্রে সব কিছুই মশার কাছে হার মানছে।

পৌরসভার নালা-নর্দমায় অপরিষ্কার পানি জমে থাকা, নিয়মিত পরিষ্কার না করা এবং যত্রতত্র ময়লা-আবর্জনা ফেলার কারণে মশা বৃদ্ধি পেয়েছে বলে অভিযোগ করেছে পৌরবাসী। মশার কারণে কোনো স্থানে স্থির হয়ে দাঁড়ানো সম্ভব হচ্ছে না। সব জায়গায় মশার উৎপাত। তারপরেও পৌর প্রশাসনের মশা নিধনে কোনো কার্যক্রম না থাকায় ব্যক্তিগত চেষ্টা আর মশার কামড় খেয়েই জীবনযাপন করতে হচ্ছে পৌরবাসীর।

এদিকে পৌরসভাতে মশা মারার ওষুধ নেই। ওষুধ ছিটানোর একটি ফগার মেশিন থাকলেও, সেই মেশিন দীর্ঘদিন যাবৎ রুমে তালাবদ্ধ রয়েছে। যার ফলে ডেঙ্গুসহ মশাবাহিত নানা রোগব্যাধিতে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকিতে রয়েছেন পৌরবাসী।
পৌরসভার মিয়াপুর গ্রামের বাসিন্দা মুরাদুল ইসলাম বলেন, মশার বংশ বিস্তার রোধে ওষুধ ছিটানোর কথা থাকলেও পৌর কর্তৃপক্ষের ওষুধ ছিটানোর কোনো খবর নেই। ড্রেনগুলো পরিস্কার করা হয়না প্রায় ছয় মাস ধরে।
এ বিষয়ে চারঘাট পৌরসভার সচিব রবিউল ইসলাম বলেন, পৌরসভায় মশা নিধনের ওষুধ এ বছর এখনো সংগ্রহ করা হয়নি। তবে আমরা স্থানীয় ভাবে কিছু ওষুধ সংগ্রহ করে খুব দ্রুতই মশা নিধন কার্যক্রম শুরু করবো।
বরেন্দ্র বার্তা/ নাসি

Close