মহানগরশিরোনাম-২স্বাস্থ্য বার্তা

রাজশাহীতে আরও ১৬২ জন হোম কোয়ারেন্টিনে, ভাইরাস ঠেকাতে রাজশাহী পুলিশের ‘করোনা রেসপন্স টিম’

 

নিজস্ব প্রতিবেদক : বুধবার দুপুরে করোনা ভাইরাস পরিস্থিতি মোকাবেলায় রাজশাহী জেলা পুলিশ ‘করোনা রেসপন্স টিম’ (সিআরটি) নামে একটি বিশেষ টিম গঠন করা হয়েছে, এই টিমের কার্যক্রম উদ্বোধন করেন পুলিশ সুপার মো. শহিদুল্লাহ।
এরই মধ্যে এই টিমকে বিশেষ প্রশিক্ষণ দিয়ে তৈরি করা হয়। তাদের দেয়া হয়েছে পার্সোনাল প্রটেক্ট ইক্যুইপমেন্ট (পিপিই)।
তিনি জানান, করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে এ টিম কাজ করবে। এছাড়াও করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে কেউ মারা গেলে তার দাফন কাজ বা এ ধরনের যে কোনো পরিস্থিতিতে সহযোগিতা করবে সিআরটি। এছাড়াও প্রাণঘাতি করোনা ভাইরাস সংক্রমণ পরিস্থিতি মোকাবেলায় জরুরী ভিত্তিতে দ্রুত সাড়া প্রদান ও বিদেশ ফেরত নাগরিকদের হোম কোয়ারেন্টাইন মেনে চলার বিষয়টি আরো বেশি কার্যকর করতে জেলা পুলিশের ‘করোনা রেসপন্স টিম’ মাঠে কাজ করবে।
মো. শহিদুল্লাহ বলেন, এ টিমের সদস্য সংখ্যা ৩০ জন। এ টিমের দায়িত্বে রয়েছেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মাহমুদুল হাসান। টিমের সদস্যদের করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ সংক্রান্ত বিশেষ প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয়েছে।
পুলিশ সুপার বলেন, এ টিম রাজশাহী জেলার যে কোন এলাকায় করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের বিষয়ে দ্রুত সাড়া দেবে। স্থানীয় প্রশাসন ও স্বাস্থ্য কর্মকর্তাদের সাথে সমন্বয় করে কাজ করবে। পাশাপাশি কয়েকটি গ্রুপে বিভক্ত হয়ে থানা এলাকায় জনগনকে করোনা ভাইরাস বিষয়ে সচেতন থাকা, বিদেশফেরত নাগরিকদের হোম কোয়ারেন্টাইন মেনে চলা এবং গুজব থেকে বিরত থাকার বিষয়েও পরামর্শ দেবে সিআরটি বলে জানান পুলিশ সুপার মো. শহিদুল্লাহ।
অন্যদিকে, রাজশাহীতে ২৪ ঘন্টায় আরও ১৬২ জনকে হোম কোয়ারেন্টিনের আওতায় আনা হয়েছে। স্বাস্থ্যকর্মীরা তাদের খুঁজে বের করে হোম কায়ারেন্টিনের ব্যবস্থা করে। এ নিয়ে বর্তমানে হোম কোয়ারেন্টিনে রয়েছেন ৩৯৩ জন বলে জানিয়েছেন রাজশাহী সিভিল সার্জন ডাঃ এনামুল হক।
তিনি জানান, গত ২৪ ঘন্টায় ১৬২ জন খুঁজে বের করে তাদের হোম কোয়ারেন্টিন নিশ্চিত করা হয়েছে। পুলিশ ও স্বাস্থ্য কর্মীরা তাদের খাঁজে বের করে। এরা সবাই বিদেশফেরত। হোম কোয়ারেন্টিন থেকে তারা নিয়ম মানছেন কি না সেটিও নজরদারি করা হচ্ছে বলে জানান সিভিল সার্জন।
নতুন হোম কোয়ারেন্টিনে থাকাদের মধ্যে রাজশাহী নগরে রয়েছেন ১১৫ জন। এছাড়াও জেলার বাঘা উপজেলায় ১০ জন, চারঘাটে পাঁচজন, দুর্গাপুরে পাঁচজন, পুঠিয়ায় তিনজন, বাগমারায় তিনজন, মোহনপুরে তিনজন, তানোর, চারজন, পবায় চারজন ও গোদাগাড়ী ১০ জন।
নতুন কোয়ারেন্টিনে নেয়া বিদেশফেরতদের মধ্যে ভারত থেকে এসেছেন ১০৯, মালেশিয়ার ১, আমেরিকার ৩, চীনের ১১, সিঙ্গাপুর থেকে ৪, সৌদি আরব থেকে ১২ জন, ইংল্যান্ডের ২, কাতারের ৩, লেবাননের ১, গুনাইয়ের ১, সুদানে ১, বাহারাইনের ১, পাকিস্তান থেকে এসেছেন ২ জন, দুবাইয়ের ৪, কঙ্গোর ১, কানাডার ১, ফিলিপাইনের ২, কুয়েতের ২, দক্ষিন কোরিয়া থেকে এসেছেন ১ জন।রাজশাহীতে ২৪ ঘন্টায় আরও ১৬২ জনকে হোম কোয়ারেন্টিন, ভাইরাস ঠেকাতে রাজশাহী পুলিশের ‘করোনা রেসপন্স টিম’
সিভিল সার্জন এনামুল হক বলেন, গত ১ মার্চ থেকে এ পর্যন্ত এক হাজার ৩৪৪ জন বিদেশফেরত রাজশাহী এসেছেন। এদের মধ্যে এখন পর্যন্ত মোট ৫২৮ জনকে হোম কোয়ারেন্টিনের আওতায় আনা হয়। এদের মধ্যে ১৩৫ জনকে ছাড়পত্র দেয়া হয়েছে।
ডাঃ এনামুল হক বলেন, রাজশাহীতে এখন পর্যন্ত ৪৯০টি পারসোনাল প্রোটেকটিভ ইকুইপমেন্ট (পিপিই) এসেছে। এর মধ্যে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে দেয়া হয়েছে ৩৭০টি। আর বাকি ১২০টি দেয়া হয়েছে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সগুলোতে। প্রয়োজনে আরও আসবে বলে জানান এই স্বাস্থ্য কর্মকর্তা। বরেন্দ্র বার্তা/অপস

Close