গোদাগাড়িশিরোনাম-২

নিজ তহবিল হতে অসহায়দের ঘরে ত্রাণ পৌঁছে দিলেন কাঁকনহাট পৌর মেয়র

নিজস্ব প্রতিবেদক: করোনা ভাইরাসের কারনে গোটা বিশ্ব আজ নিস্তব্ধ হয়ে পড়েছে। যত সময় যাচ্ছে, ততই মৃত্যুর হার বাড়ছে । লাগামহীন হয়ে পড়েছে এই ভাইরাস। দ্বিতীয় বিশ্ব যুদ্ধকেও হার মানাতে যাচ্ছে। বাংলাদেশ এর বাহিরে নেই। প্রতিদিন নতুন করে মানুষ আক্রান্ত হচ্ছে। সেদিক থেকে বাংলাদেশও এখন কম ঝুকিতে আর নেই। এই ঝুকি ও মৃত্যু কমাতে এবং সংক্রমণ রোধে সরকারি নির্দেশনা মেনে নিজ ঘরে অবস্থান করছে দেশের মানুষ। বর্তমানে বন্ধ রয়েছে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, ব্যবসা বাণিজ্য, বেসরকারী সকল প্রতিষ্ঠান, দিন মজুরী ও যানবাহন চলাচলও। এতে কর্মহীন হয়ে পড়েছেন দিনমজুর, শ্রমিক, রিকশাচালকসহ দুস্থ ও অসহায় পরিবারের সদস্যরা। খাদ্য সংকট দেখা দিয়েছে তাদের ঘরে।
রাজশাহীর কাঁকনহাট পৌর মেয়র আলহাজ্ব আব্দুল মজিদ এর নিজস্ব তহবিল হতে এই পরিবারের লোকদের মুখে একমুঠো ভাত ও একটুকরো রুটি তুলে দিতে আজ শুক্রবার সকালে অসহায় ও কর্মহীন ১০০০ জনের মধ্যে চাল, ডাল, আটা ও আলুসহ প্রায় ১০ কেজি খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করা হয়। তানোর-গোদাগাড়ী আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব ওমর ফারুক চৌধুরী প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে এই খাদ্য সামগ্রী বিতরনের উদ্বোধন করেন। পরে প্রতিটি ওয়ার্ডে আওয়ামী লীগের নেতাদের মাধ্যমে অসহায় পরিবারের বাড়িতে যেয়ে এই খাদ্য সামগ্রী তুলে দেওয়ার ব্যবস্থা করেন মেয়র আব্দুল মজিদ।
প্রধান অতিথি বলেন, মেয়র আব্দুল মজিদের নিজস্ব তহবিল থেকে এই খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করা হয়। তিনি বলেন, দেশ এখন অত্যন্ত সংকট মুহুর্ত সময় অতিবাহিত করছে। সকল সরকারী বেসরকারী প্রতিষ্ঠান, যাবনবাহন, ব্যবসা-বাণিজ্য ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় জনগণ র্কমহীন হয়ে পড়েছে। দেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, জনগণ যেন এই প্রাণঘাতী ভাইরাস থেকে মুক্ত থাকতে পারে তার জন্যই এই পরিকল্পনা গ্রহন করেছেন। সেইসাথে তিনি সকল মানুষকে অতি প্রয়োজন ছাড়া ঘর থেকে বের হতে নিষেধ করেছেন। এর ফলে মানুষের রোজগার বন্ধ হয়ে যাওয়ায় সরকারীভাবে ত্রাণ বিতরণ শুরু করেছেন। সরকারের পাশাপাশি সমাজের বীত্তবানদের এগিয়ে আসার আহবান জানান তিনি। সেইসাথে দুই হাত দুরত্ব বজায় রেখে জনগণকে চলাচল করতে অনুরোধ করেন তিনি। রাস্তায় আসলেই মাস্ক এবং দিনে ১০-১২বার খার জাতীয় সাবান কিংবা হ্যান্ড ওয়াস দিয়ে হাত ধোয়ার পরামর্শ দেন প্রধান অতিথি। পরে তিনি কাঁকনহাট পৌর জনগণের মধ্যে মাস্ক বিতরণ ও ব্লিচিং পাউডার মিশ্রিত পানি ছিটানো কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন।
মেয়র আব্দুল মজিদ বলেন, বিশ্বের ২০৩টি দেশ এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে। আমেরিকার মত দেশ এই ভাইরাস প্রতিরোধ করতে হিমশিম খাচ্ছে। সচেতনতাই পারে এই ভাইরাস থেকে জনগণকে মুক্ত রাখতে। সরকারী নির্দেশনা মেনে ঘরে থাকার জন্য জনগলণকে আহবান জানান তিনি। সেইসাথে চোখ, নাক ও মুখে অপরিস্কার হাত না দেয়ার পরামর্শ দেন তিনি। আতঙ্কিত না হয়ে সচেতন হওয়ার আহবান জানিয়ে কাঁকনহাট পৌরবাসীর সাথে সর্বদা আছেন এবং আগামীতেও থাকবেন বলে জানান মেয়র। বরেন্দ্র বার্তা/ফকবা/অপস

Close