নওগাঁ

নওগাঁয় ১০টাকা কেজির চাল পেয়ে হতদরিদ্র মানুষের মুখে হাসি

মো.আককাস আলী, নওগাঁ : সারা বিশ্বের ন্যায় বাংলাদেশে যখন প্রাণঘাতি করোনাভাইরাস প্রতিরোধে কর্মহীন হতদরিদ্র মানুষ চোখে অন্ধকার দেখছিল সেই সময় সরকারের বিপুল পরিমাণ ত্রাণ ও ১০টাকা কেজির ৩শ টাকায় ৩০ কেজি চাল পেয়ে ওইসব মানুষের মুখে হাসি ফুঁটে উঠেছে।
স্বল্পমূল্যে হতদরিদ্রদের মাঝে এই চাল বিক্রয়ের কার্যক্রম সুষ্ঠ ভাবে তদারকী করার জন্য সরকারী কর্মকর্তা নিয়োগ করেছেন।
১০টাকা কেজির চাল হতদরিদ্র কার্ডধারীরা প্রতিমাসে সোম,মঙ্গল ও বুধবার সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত সংগ্রহ করতে পারবে। কালোবাজারে চাল বিক্রি ঠেকাতে নওগাঁ জেলা প্রশাসন কঠোর পদক্ষেপ হাতে নিয়েছেন। ইতিমধ্যে জেলার বিভিন্ন উপজেলায় প্রশাসনের তদারক কর্মিটি কঠোর ভাবে বিভিন্ন পয়েন্ট পরিদর্শনসহ নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। সরেজমিনে দেখা যায় উপজেলা সদরের ডিলার মো. এমদাদুল হক ও মো. জাহিদ হাসান তাদের প্রতিষ্টানে সুন্দর ও সুষ্ঠ ভাবে চাল বিক্রয় এর কার্যক্রম চলমান রয়েছে। হতদরিদ্র ভোক্তরা এই চাল দুরত্ব বজায় সংগ্রহ করছেন। উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক শওকত জামিল প্রধান জানান, মহাদেবপুরে ১১হাজার ৬শ ২৮জন হতদরিদ্র কার্ডধারী ১০টাকা কেজি দরে ৩০ কেজি চাল পাবেন। তিনি আরও জানান,উপজেলায় ১৫টি ডিলার এই স্বল্পমূল্যে হতদরিদ্রদের মাঝে এই চাল বিক্রয়ের কার্যক্রম সুষ্ঠ ভাবে পরিচালনা করবেন। বরেন্দ্র বার্তা/অপস

Close