চাঁপাই নবাবগঞ্জশিরোনাম-২

কানসাট ইউপি চেয়ারম্যান বেনাউলের বিরুদ্ধে স্বেচ্ছাচারিতার অভিযোগ

 

নিজস্ব প্রতিবেদক: চাঁপাইনবাবঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলার ৬ নং কানসাট ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মো: বেনাউল ইসলামের উপর স্বেচ্ছাচারিতা ও স্বজনপ্রীতির অভিযোগ উঠেছে।
সম্প্রতি করোনা ভাইরাস পরিস্থিতিতে সৃষ্ট দুর্যোগে বিশেষ মানবিক সহায়তা বাস্তবায়ন নির্দেশিকা-২০২০০ যথাযথ অনুসরণ পূর্বক মানবিক সহায়তা প্রদানের তালিকা প্রস্তুতের ক্ষেত্রে চরম স্বেচ্ছাচারিতা ও স্বজনপ্রীতির অভিযোগ উঠেছে তাঁর বিরুদ্ধে।
শনিবার ৯ মে ২০২০ শিবগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবর এই মর্মে একটি অভিযোগ দায়ের করেন কানসাট ইউনিয়ন পরিষদের সকল সদস্য ও সংরক্ষিত মহিলা সদস্যবৃন্দ। ইউনিয়ন পরিষদের ৯ জন সদস্য ও ৩ জন সংরক্ষিত মহিলা সদস্য স্বাক্ষরিত অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, সম্প্রতি করোনা ভাইরাসের সৃষ্ট দুর্যোগে অসহায় ও দুস্থদের জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকারের বিশেষ মানবিক সহায়তা প্রদানের জন্য শিবগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয় থেকে তালিকা চাওয়া হলে ইউপি চেয়ারম্যান বেনাউল ইসলাম কোন সদস্যের সাথে কোন রকম আলোচনা ছাড়াই নিজেই তালিকা প্রস্তুত করে প্রত্যেক সদস্যের নিকট থেকে মাত্র ২৫ জনের নামের তালিকা চায়। এতে সদস্যরা ইউনিয়নে মোট কতজন সহায়তা পাবে এ বিষয়ে চেয়ারম্যানের নিকট জানতে চাইলে তিনি ইউপি সদস্যদের বলেন, সেইগুলি জানান দরকার নেই, যে কয়টা নাম চেয়েছি ইচ্ছে হলে দেন. না হলে না দেন।

অভিযোগ প্রদান করতে আসা ইউপি সদস্যরা আরো বলেন, আমাদের চেয়ারম্যান মহোদয় কোন বিষয় নিয়েই আমাদের সাথে কোন আলোচনা করেননা, উপর থেকে যখনই কোন প্রজেক্ট এসেছে, তিনি নিজের মতো করেই সবকিছু সম্পন্ন করার পরে দায়সারা ভাবে আমাদের বলেছেন যখন আমাদের আর কিছু করার থাকে না। এতে করে কানসাট ইউনিয়নের প্রকৃত অসহায়, দুস্থ ও সহায়তা পাওয়ার যোগ্য ব্যক্তিরা বারবার সুবিধাবঞ্চিত হচ্ছে। আমরা এর সুষ্ঠু সমাধান চাই। এজন্য আমরা শিবগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবর অভিযোগ দিয়েছি, প্রয়োজনে আমরা জেলা প্রশাসক বরাবরও অভিযোগ দায়ের করবো।
এ বিষয়ে কানসাট ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যানা মো: বেনাউল ইসলাম বলেন, এটি সম্পূর্ণ মিথ্যা ও বানোয়াট অভিযোগ। বেশ কয়েকজন সদস্য ও সংরক্ষিত মহিলা সদস্য আমাকে তালিকা দিয়েছেন এবং তাদের তালিকা অনুযায়ীই আমি মানবিক সহায়তা কার্ডের তালিকা প্রস্তুত করেছি।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো: শিমুল আকতার বলেন, ঐ ইউনিয়ন পরিষদের সদস্যরা আমার নিকট অভিযোগ করেছেন, আমি সংশ্লিষ্ট ট্যাগ অফিসারের নিকট সেটি তদন্তের জন্য পাঠিয়েছি। বরেন্দ্র বার্তা/অপস

Close