নওগাঁশিরোনাম-২

মান্দায় ইউপি সচিবের বিরুদ্ধে শ্লীলতাহানির অভিযোগ: থানায় মামলা

 

কাজী কামাল হোসেন , নওগাঁ: নওগাঁর মান্দায় জাহিদুর রহমান নামে ইউনিয়ন পরিষদের সচিবের বিরুদ্ধে এক গৃহবধূকে শ্লীলতাহানির অভিযোগে থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।
বৃহস্পতিবার (১৫ মে) সন্ধ্যায় উপজেলার গনেশপুর ইউনিয়নের মীরপুর গ্রামের ওই ভিকটিম নিজে বাদী হয়ে থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন আইনের ১০ ধারায় একটি মামলা দায়ের করেন। মামলা নং ২০।
অভিযুক্ত জাহিদুর রহমান গনেশপুর ইউনিয়নের সচিব।
এদিকে এই ঘটনায় তাৎক্ষনিক ভাবে চেয়ারম্যান হানিফ উদ্দিনের কাছে বিচার চাওয়ায় চেয়ারম্যান ভিকটিমকে গলাধাক্কা দিয়ে ইউনিয়ন পরিষদ থেকে বের করে দিয়েছেন বলে অভিযোগ করেছেন ভুক্তভোগী ওই গৃহবধূ।
অভিযোগ তিনি উল্লেখ করেন,তার সৌদি প্রবাসী স্বামীর নামে থাকা ১০টাকা কেজি চালের একটি কার্ড আছে। কার্ডটি নিজের নামে পরিবর্তন করে নেয়ার জন্য গত মঙ্গলবার দুপুরে শাশুড়িকে সাথে নিয়ে তিনি গনেশপুর ইউনিয়ন পরিষদে গিয়ে চেয়ারম্যান হানিফ উদ্দিন মন্ডলের সাথে দেখা করলে তিনি তাকে সচিবের সাথে যোগাযোগ করতে বলেন।
চেয়ারম্যানের কথা মতো তিনি সচিবের কক্ষে তার সাথে দেখা করলে সচিব তাকে কার্ডের একটি তালিকা দেখতে বলেন। এসময় তার শাশুড়ী পরিষদের মাঠে বসেছিলেন। তিনি তালিকাটি দেখার সময় সচিব জাহিদুর রহমান হঠাৎ করেই তার শরীরে হাত দেয়ার চেষ্টা করেন।
এদিকে এই ঘটনা ঘটার পর থেকে ইউনিয়নের চেয়ারম্যান হানিফ উদ্দিন মন্ডল বিষয়টি ধামাচাপা দেওয়ার জন্য বিভিন্ন ভাবে ভয়ভীতি দেখাচ্ছেন বলে জানিয়েছেন ওই গৃহবধূ।
ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হানিফ উদ্দিন মন্ডল তার বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, বিষয়টি নিয়ে আজকে আলোচনায় বসার কথা আছে। কি সিদ্ধান্ত হয় আপনাকে জানানো হবে।
ইউনিয়ন পরিষদের সচিব জাহিদুর রহমান বলেন, বিষয়টি সম্পূর্ণ মিথ্যা, বানোয়াট ও ভিত্তিহীন। এটি একটি সাজানো নাটক। আমাকে ফাঁসানোর চক্রান্ত।
মান্দা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আব্দুল হালিম বলেন, বিষয়টি জানার পরে উর্ধতন কর্তৃপক্ষকে জানিয়েছি।
মান্দা থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) তারেকুর রহমান সরকার বলেন, অভিযোগ পাওয়ার পর তদন্ত সাপেক্ষে মামলা রেকর্ড করা হয়েছে। দ্রুত আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।
বরেন্দ্র বার্তা/অপস

Close