পবাশিরোনাম

করোনা পজিটিভ জেনে ঢাকা থেকে পালিয়ে রাজশাহীতে, ১৬ দিন পর স্বীকার

 

স্টাফ রিপোর্টার: করোনা পজিটিভ জেনে ঢাকা থেকে পালিয়ে বাড়ি চলে আসেন এক যুবক। তারপর কাউকেই কিছু বলেননি। ১৬ দিন পর হাসপাতালে গিয়ে জানান, তিনি করোনা পজিটিভ। আবার নমুনা পরীক্ষা করে জানতে চান করোনামুক্ত হয়েছেন কি না। গত বৃহস্পতিবার (১৪ মে) রাজশাহীর পবা উপজেলায় এ ঘটনা ঘটেছে।

করোনা আক্রান্ত ওই যুবকের নাম শাওন (২০)। তার বাড়ির পবার দর্শনপাড়া ইউনিয়নের ফকিরপাড়া গ্রামে। তার বাবার নাম আতাউর রহমান। শাওন ঢাকার একটি তৈরি পোশাক কারখানায় কাজ করতেন। গত ২৮ এপ্রিল ঢাকায় তার করোনা পজিটিভ রিপোর্ট আসে। শুনেই পরদিন রাজশাহী পালিয়ে আসেন তিনি।

পবা উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. রাবেয়া বশরী জানান, গত বৃহস্পতিবার শাওন স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে গিয়ে জানান, ঢাকায় করোনা পজিটিভ হওয়ায় তিনি রাজশাহী এসেছেন। এই কয়দিন কাউকে কিছু না জানিয়ে বাড়িতেই ছিলেন। এখন তার করোনার কি অবস্থা তা পরীক্ষা করাতে চান।

এই কথা শোনার পর চিকিৎসকরা শাওন এবং তার বাবা আতাউর রহমান ও মা মিনিআরা বেগমকে হাসপাতালে আইসোলেশনে রাখেন। পরে তাদের বাড়ি এবং আশপাশের আরও কয়েকটি বাড়ি লকডাউন করা হয়। এই তিনজনের নমুনা পরীক্ষার ব্যবস্থা করা হচ্ছে বলেও জানান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা।

দর্শনপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান কামরুল হাসান রাজ বলেন, শুনেছি শাওন ঢাকা থেকে আসার পর বাড়ি থেকে বের হয়নি। তবে তার বাবা আতাউরও ঢাকা থেকে এসেছেন এবং এলাকার বাজারে ঘুরেছেন। তার সাথে যারা মিশেছেন তাদের চিহ্নিত করে বাড়ি লকডাউন করা হচ্ছে।

পবা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মোহাম্মদ শাহাদাত হোসেন বলেন, ওই এলাকার বাড়িগুলো লকডাউন করা হচ্ছে। আর যারা সংক্রমিত হতে পারেন তাদের নমুনা পরীক্ষার জন্য বলা হয়েছে।

বরেন্দ্র বার্তা/অপস

Close