আন্তর্জাতিকছবি ঘরজাতীয়নাগরিক মতামতমহানগরশিরোনাম-২

ঈদের ডায়রি

অর্ণব পাল সন্তু

২৫ মে ২০২০, ১১ জৈষ্ঠ্য, ১ শাওয়াল

সকাল ১০টা , রাজশাহী
‘রমজানের ওই রোজার শেষে এলো খুশীর ঈদ’….
আজ ঈদ, সেই সাথে রোজার ঈদের অবিস্মরণীয় গানটির রচয়িতা জাতীয় কবির জন্মদিন।
রাজশাহীতে ঈদের জামাতে মহামারি থেকে পরিত্রাণে দোয়াএবারের ঈদটা অন্যরকম। করোনা আর সেই সাথে সদ্য যা্ওয়া ঘূর্ণিঝড় আম্ফানের তান্ডব। করোনা পরিস্থিতিতে নানা বিধি নিষেধাজ্ঞা। সেসব মেনেই রাজশাহীতেও পালিত হলো ঈদ। সকাল ৮টায় রাজশাহীর হজরত শাহ মখদুম (রহ.) কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে ইদের প্রধান জামাত অনুষ্ঠিত হয়। এতে ইমামতি করেন কেন্দ্রীয় মসজিদের পেশ ইমাম ও খতিব হাফেজ মাওলানা মো. মোস্তাফিজুর রহমান।
এবার কোন কোনো বাড়িতেও ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হয়েছে। ফলে ফাঁকা পড়ে ছিল ঐতিহ্যবাহী শাহ মখদুম ঈদগাহ মাঠটি। করোনাভাইরাস আতঙ্কে সরকারি নির্দেশনা মেনে এবার ঈদগাহে নামাজ আদায় না করার জন্য নির্দেশনা দেয়া হয়। সেই নির্দেশনা মেনে রাজশাহীতে ঈদের প্রধান জামায়াত অনুষ্ঠিত হয় শাহ মখদুম দর গাহ মসজিদে। ফলে শাহ মখদুম ঈদগাহ মাঠটি পড়েছিল ফাঁকা। বাড়িতে আদায় হলো , ফাঁকা পড়েছিল শাহ মখদুম ঈদগাহ মাঠ।
সকালে সেখানে গিয়ে দেখা যায়, কিছু ময়লার ভ্যান দাঁড় করানো রয়েছে। আর গোটা মাঠ ফাঁকা পড়ে আছে। নামাজের জন্য কোনো প্রস্তুতি নাই। মুসল্লিদেরও আনা-গোনা নাই। যেন বুক ফাটা কান্না করছে ঈদগাহ মাঠ। করোনাভাইরাস আতঙ্কে দেশের এই ঐতিহ্যবাহী ঈদগাহ মাঠটিতে এবার ঈদের জামায়াত অনুষ্ঠিত হয়নি। এই প্রথম ঈদের নামাজ ছাড়া কাটছে শাহ মখদুম ঈদগাহ মাঠের ঈদ।

বেলা ২টা, রাজশাহী
রাজশাহী নগরীর ২৭ নম্বর ওয়ার্ডের আনোয়ারুল আলম আজব কাউন্সিলরের ছোট ছেলে (২৭) করোনায় আক্রান্ত। গতকাল রবিবার পরীক্ষায় তার নমুনায় করোনা ধরা পড়ে।

দুপুর পৌনে ৩টা, খুলনা
খুলনার কয়রায় করোনার সাথে আম্ফানের তান্ডবে লন্ডভন্ড সব, বাঁধ ভেঙেছে। ঘর ভেঙেছে। থাকার কোনো জায়গা নেই মানুষের। ঘরে পানি ঢুকে গেছে। এবার ঈদের আনন্দ নেই কয়রাবাসীর মাঝে। হাঁটু পানিতে দাঁড়িয়ে পড়তে হয়েছে ঈদের নামাজ।
তবে এসবে অনেকটা অভ্যস্ত এই উপজেলার মানুষ। আইলায় বছরের পর বছর যখন ডুবে ছিল প্রায় গোটা এলাকা, তখনও ঈদের নামাজ পড়তে হয়েছে নৌকায় অথবা বাঁশের ঝাপির ওপরে।হাঁটু পানিতে ঈদের নামাজ আদায়
গত ২০ মে রাতে ঘূর্ণিঝড় আম্ফানের ভয়াল থাবায় খুলনার উপকূলীয় কয়রা উপজেলা ছিন্নভিন্ন। ২৩টি বাঁধ ভেঙে সমুদ্রময় চারটি ইউনিয়ন।
লোনা পানি থেকে রক্ষা পেতে প্রতিদিন স্বেচ্ছাশ্রমে কাজ করছে হাজার হাজার মানুষ। প্রতিদিনের মতো সোমবার ঈদের দিনও সদর ইউনিয়ের ২ নং কয়রা গ্রামের ক্লোজারে কোদাল হাতে বাঁধ মেরামতে হাজারও মানুষ অংশ নেন। কাজের মধ্যেই তাদের হাঁটু পানিতে ঈদের নামাজ পড়তে দেখা গেছে।
সদর ইউনিয়নে ২নং কয়রা গ্রামের ১৩/১৪-২ নম্বর পোল্ডারের কাজ শেষে স্বেচ্ছাশ্রমে কাজ করতে আসা প্রায় পাঁচ হাজার মানুষ ক্লোজারে হাঁটু পানিতে দাঁড়িয়ে ঈদের জামাত আদায় করেন।

বেলা ৩টা, স্বাস্থ্য অধিদফতর, ঢাকা
ঈদের দিনে সারাদেশে করোনায় মোট মৃতের সংখ্যা ছাড়িয়ে যায় ৫০০। ২৪ ঘন্টায় মারা গেছে ২৪জন, নতুন শনাক্ত ১৯৭৫ জন। ফলে মোট মৃত্যু ৫০১, মোট শনাক্ত ৩৫,৫৮৫ জন। ঈদের দিনে করোনায় মৃতের সংখ্যা ছাড়াল পাঁচশ’
গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন আরও ৪৩৩ জন। এ নিয়ে সুস্থ হয়ে ওঠা রোগীর সংখ্যা দাঁড়াল সাত হাজার ৩৩৪ জনে।
এ ভাইরাসে বিশ্বজুড়ে এখন পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন ৫৫ লাখ ১৩ হাজারেরও বেশি মানুষ। মৃতের সংখ্যা তিন লাখ ৪৭ হাজার প্রায়। তবে সাড়ে ২৩ লাখের বেশি রোগী ইতোমধ্যে সুস্থ হয়েছেন।

 

বিকাল সাড়ে ৩টা, রাজস্থান, ভারত
চরম হুমকিতে ভারতের অর্থনীতি। এ মাসের শুরুতে রাজস্থানে প্রবেশের পর এখন মধ্যপ্রদেশ ও উত্তর প্রদেশেও ছড়িয়ে পড়েছে পঙ্গপালের কয়েকটি ঝাঁক। এদের একটি দল দিল্লীর দিকে যাচ্ছে বলেও অনুমান করা হচ্ছে।

প্রতীকি ছবি

প্রায় আড়াই থেকে ৩ কিলোমিটার দীর্ঘ পঙ্গপালের এ ঝাঁক থেকে রক্ষা পেতে উত্তরপ্রদেশ ও মধ্যপ্রদেশের কৃষক ও কর্মকর্তাদের ঘুম হারাম। ফসল বাঁচাতে সতর্কতা অবলম্বন করছে দুই রাজ্যের সরকার। কোথাও রাসায়নিক স্প্রে কোথাও বা ধাতব শব্দ করে পঙ্গপালের হাত থেকে রেহাই পেতে চেষ্টা করছে চাষিরা। রাজস্থান থেকে ড্রোন চাওয়া হয়েছে কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে।

মধ্যপ্রদেশের কর্মকর্তারা জানান, ২৭ বছরের মধ্যে বৃহত্তম পঙ্গপালের আক্রমণ হতে চলেছে এ রাজ্যে। বর্ষা না আসা পর্যন্ত এই সংকট বাড়ার সম্ভাবনা রয়েছে। রাজস্থানের বেশ কয়েকটি জায়গায় সবজি, ফসল ও গাছ ধ্বংস করার পর পঙ্গপালের একটি ঝাঁক মধ্যপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী শিবরাজ সিংহের নির্বাচনী এলাকা বুধনিতে প্রবেশ করে। এরা রাজ্যের নিমুচ জেলা দিয়ে প্রবেশ করেছে, পরে মালওয়া নিমারের কিছু অংশ পাড়ি দিয়ে এখন ভোপালের কাছে রয়েছে।

বিকাল ৪টা , রাজশাহী
জীবনে এমন ঈদ এর আগে কখনোই দেখেনি কেউ।প্রতিবার ঈদে নগরীর বিনোদনকেন্দ্রগুলো সাজে নতুন সাজে। বিশেষ করে পদ্মা গার্ডেন এবং দুটি পার্ক ঘিরে লোকে লোকারণ্য হয়ে উঠে সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত। কিন্তু ঈদের বর্ণিল উৎসবের সেই জৌলুশ নেই! ফাঁকা পরেছিল সব…
করোনায় এবার ঈদে বিনোদন কেন্দ্রে যেতে না পেরে বাড়ির ছাদে ও মাঠে ঘুড়ি উৎসবে মেতেছে রাজশাহী নগরীর সব বয়সের মানুষেরা। পরিবার-পরিজন নিয়ে সেই বাংলার ঐতিহ্য রুঙিন ঘুড়ি উড়িয়ে ঈদের আনন্দ উদযাপন করতে দেখো গেছে নগরীর বিভিন্ন পাড়া মহল্লায়।
ঈদকে ঘিরে ঘুড়ি উড়ানোর সরঞ্জামের চলছে রমরমা ব্যবসা।

সন্ধ্যা সাড়ে ৭ টা, মাগুরা
সন্ধ্যায় বর্বর মর্মন্তিক নৃসংশতার খবর পা্ওয়া গেল, বাংলা ট্রিবিউন বলছে, মাগুরার শ্রীপুর উপজেলার শ্রীকোল ইউনিয়নের মিনগ্রাম, শলইনগর, খর্দহুয়া এলাকায় ঈদের নামাজ নিয়ে দুই পক্ষের সংঘর্ষে অন্তত ১০০ বাড়িতে হামলা ও ভাঙচুরের ঘটনা ঘটেছে। এ সময় ঈদের নামাজে দাঁড়ানো অবস্থায় ১০/১২ জনকে কুপিয়ে আহত করার অভিযোগ উঠেছে প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে। অন্তত ৫০ রাউন্ড গুলি করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনা হয়েছে বলে পুলিশ জানিয়েছে।মাগুরায় নামাজে দাঁড়ানো অবস্থায় অন্তত ১০ জনকে কুপিয়ে আহত, ১০০ বাড়ি ভাঙচুর
ওই এলাকার আসাদ শেখসহ একাধিক ব্যক্তি অভিযোগ করেন, সকালে পূর্ব পরিকল্পিতভাবে ঈদের নামাজ নিয়ে সামান্য কথা কাটাকাটির ঘটনা ঘটে শ্রীকোল ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোতাসিম বিল্লাহ সংগ্রাম ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আমির মোল্যার সমর্থকদের মধ্যে। এসব ব্যক্তির দাবি, এ ঘটনার একপর্যায়ে শ্রীকোল ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোতাসিম বিল্লাহ সংগ্রামের নির্দেশে শিহাব বিশ্বাস, আবু সাঈদ মণ্ডল, বক্কার মোল্যার নেতৃত্বে বেছে বেছে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আমির মোল্যার সমর্থকদের বাড়িতে আক্রমণ শুরু হয়। এ সময় তারা ঈদের নামাজে দাঁড়ানো অবস্থায় ওসমান, আবু তালেব, ফুয়াদসহ ১০/১২ জনকে কুপিয়ে আহত করে। তারা অন্তত ১০০ বাড়িঘর ভাঙচুর ও ৪ জনকে কুপিয়ে গুরুতর জখম করে।

গণস্বাস্থ্যের কিটে ডা. জাফরুল্লাহ করোনা পজিটিভরাত সাড়ে ৮ টা, ঢাকা
গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের অন্যতম ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরীর করোনা পরীক্ষার ফলাফল পজিটিভ এসেছে। সোমবার (২৫ মে) রাত সাড়ে আটটার দিকে তিনি নিজেই এ তথ্য জানান।
জাফরুল্লাহ চৌধুরী জানান, গতকাল রবিবার (২৪ মে) সন্ধ্যায় তার শরীরের তাপমাত্রা বৃদ্ধি পেলে তিনি পরীক্ষা করান। গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের উদ্ভাবিত কিটেই তার পরীক্ষা করানো হয় বলে জানান তিনি। যার ফলাফল পজিটিভ এসেছে।

রাত ৯ টা, ঢাকা
বাংলাদেশের উত্তর-পূর্বে ভারতের মণিপুর রাজ্যে একটি মাঝারি পাল্লার ভূমিকম্প আঘাত হেনেছে। এতে কেঁপে উঠেছে ঢাকাও।
সোমবার (২৫ মে) বাংলাদেশ সময় রাত ৮টা ৪২ মিনিটে মণিপুরের কাচিং শহরের ১১ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে এটি অনুভূত হয়।
যুক্তরাষ্ট্রের ভূতাত্ত্বিক জরিপ সংস্থা ইউএসজিএসের তথ্যমতে, রিখটার স্কেলে ভূমিকম্পটির মাত্রা ছিল ৫ দশমিক ২। এর কেন্দ্রস্থল ছিল ভূপৃষ্ঠের সাড়ে ৬০ কিলোমিটার গভীরে।
এ বিষয়ে ইন্ডিয়া টুডের খবরে বলা হয়, ভূমিকম্পটির কারণে কেঁপে ওঠে পার্শ্ববর্তী রাজ্য আসাম, মেঘালয়, নাগাল্যান্ড ও মিজোরামও।
ওই ভূমিকম্পে ঢাকাসহ দেশের উত্তর-পূর্বাঞ্চলও কেঁপে উঠেছে বলে খবর মিলেছে। তবে মণিপুর বা বাংলাদেশে কোথাও তাৎক্ষণিকভাবে কোনো ক্ষয়ক্ষতির খবর মেলেনি।

(এবারের ঈদটা সম্পুর্ন অন্যরকম, সেই সাথে বেশ ঘটনাবহুলও বটে। সারাদিনের ঘটনাপঞ্জী ধরে রাখতেই সামান্য প্রচেষ্টা)

সংবাদ সুত্র: বরেন্দ্র বার্তা, সিল্কসিটি নিউজ, সোনালী সংবাদ, সাংবাদিক রুবেল, বাংলা নিউজ ২৪, আনন্দবাজার, জি ২৪ ঘন্টা, বাংলা ট্রিবিউন, জাগো নিউজ ।
Close