মহানগরশিরোনাম-২

প্রত্যাহার করা হলো শিরোইল পুলিশ ফাঁড়ির লকডাউন

নিজস্ব প্রতিবেদক: রাজশাহীর শিরোইল পুলিশ ফাঁড়ির লকডাউন প্রত্যাহার করা হয়েছে।
বৃহস্পতিবার সকাল থেকেই সংশ্লিষ্ট পুলিশ কর্মকর্তা কাজে যোগ দিয়েছেন। গত ২৬ মে থেকে বোয়ালিয়া থানাধীন এই পুলিশ ফাঁড়িটির ‘কর্মবিরতি’ ঘোষণা করা হয়েছিল। কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়েছিল ফাঁড়িতে কর্মরত ১৮ জনকে। তবে খুলে দেওয়ায় সেখানে আবারও স্বাভাবিক কার্যক্রম শুরু হয়েছে। কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো পুলিশ সদস্যরাও কাজে যোগ দিয়েছেন।
নগরীর বোয়ালিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নিবারণ চন্দ্র বর্মন বলেন, রাজশাহী খ্রীষ্টিয়ান মিশন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় গত ২২ মে করোনা আক্রান্ত হয়ে মোশাররফ হোসেন (৫৭) নামে একজন এসআই মারা যান। ওই পুলিশ কর্মকর্তার স্ত্রীর ছোট ভাই (শ্যালক) মিজানুর রহমানও এসআই। তিনি বোয়ালিয়া থানার অধীনে থাকা শিরোইল পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ ছিলেন। তিনি হাসপাতালে অসুস্থ ভগ্নিপতিকে দেখতে গিয়েছিলেন। এতে তিনিসহ ফাঁড়ির সদস্যদের মধ্যে করোনা সংক্রমিত হওয়ার আশঙ্কা দেখা দেয়। তাই তাদের কোয়ারেন্টাইনে পাঠিয়ে ফাঁড়ির কার্যক্রম স্থগিত করা হয়।
পরে গত ২৬ মে পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জের নমুনা সংগ্রহ করা হয়। একই সঙ্গে তার পরিবারের চার সদস্যেরও নমুনা পরীক্ষার জন্য দেওয়া হয়। ২৭ মে ল্যাবে শিরোইল পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ ও তার পরিবারের চার সদস্যের ফলাফল নেগেটিভ আসে। তাই পরদিন থেকে ফাঁড়ির স্বাভাবিক কার্যক্রম চালু হয়েছে।
বরেন্দ্র বার্তা/অপস

Close