শিরোনাম-২সাহিত্য ও সংস্কৃতি

করোনার সমাজতন্ত্র

রাগিব আহসান মুন্না

বহুদিন চলে গেছে একলা ঘরে অলস জীবন,
ভয়ংকর শত্রু অদৃশ্য থেকে আঘাত হানে প্রানে আনে কম্পন।
আবদ্ধ দুয়ার মাড়িয়ে কদাচিৎ বাইরে গেলে,
পথে পরম আত্মীয় সাক্ষাৎ হলে দেখিনা চোখ মেলে।
কথা বলা বাংগালি,করেনা হেয়ালী,মুখে নেই তার হাসি,
প্রানটা শুকায় মুখটা লুকায় যদি কখোনো আসে কাশি।
হাঁচি দাও কুঁনুয়ের ভাঁজে-চলাচল করো মাঝে মাঝে,
সাম্যের মহামারি আমি করোনা,
কারো জন্য নেই আমার করুনা।
ধনী তুমি সাথে আছি আমি-
গরিব দু:খী নাহি মানি-
শিক্ষা-মূর্খ নাহি জানি।
উচু-নিচুর নেই ভেদাভেদ-সাদা কালো একই খেদ।
গ্রাম-শহরের পথ করি পার-এক নাগাড়ে সব সাবাড়
দিন-রাত্রি দুপুর-সন্ধ্যা সকাল
আমার কাছে সমান মরন কাল।
গ্রীষ্ম,বর্ষা,শীত,বসন্ত ভেবেছ আমি থাকিব অন্ধ,
রোদ,বৃষ্টি ঝড়ে থাকবো তোমার ঘরে,
সচিব,মন্ত্রী,এমপি,ব্যাংকার
সকলেই শুনছে আমার হুংকার
উকিল,মোক্তার পুলিশের হাজত খানা
সেসব আমার নিরাপদ ঠিকানা,
তাইতো আমি সমাজতান্ত্রিক করোনা
ভুলেও আমার নিকট আসার ভুল করোনা।

Close