নওগাঁশিরোনাম-২

নিয়ামতপুরে বাবার হাতে ছেলে খুন

নওগাঁ প্রতিনিধি: নওগাঁর নিয়ামতপুরে বাবার হাতে ছেলে খুন হয়েছে। জানা যায়, গত ১৮ জুন সোমবার বেলা ২টায় সামান্য ঘটনাকে কেন্দ্র করে উপজেলার বাহাদুরপুর ইউনিয়নের আদমপুর চৌবাড়িয়াপাড়ার মতিউর রহমান (৪৫) তার ছেলে রাজশাহী কলেজে মনোবিজ্ঞানের ২য় বর্ষের ছাত্র রাজু (২২) কে হাসুয়া দিয়ে মাথায় আঘাত করলে সে গুরুতর আহত হয়। পরে রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় গত ২০জুন বুধবার বেলা ১০টায় মারা যায়।
নিহত রাজুর মা বাদী হয়ে থানায় মামলা দায়ের করে। ঘাতক পিতা মতিউর রহমান পলাতক। নিহতের মা জয়নব বেগম এ প্রতিবেদককে বলেন, আমার ছেলে রাজু ঈদের ছুটিতে গত ১৪ তারিখে বাড়ী আসে। ঘটনার দিন ১৮জুন বেলা ২টায় আমার স্বামী নেশা করার কারণে ছেলে একটু বকাঝকা করায় আমার স্বামী মতিউর রহমান রাগের মাথায় হাসুয়া দিয়ে ছেলের মাথায় আঘাত করে। ছেলে সাথে সাথে মাটিতে লুটিয়ে পড়ে। আমি ও আমার প্রতিবেশীরা সাথে সাথে ছেলে প্রথমে খড়িবাড়ী হাটে মাতৃ ক্লিনিকে নিয়ে আসি। সেখানে না হওয়ায় সাথে সাথে রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় গত বুধবার বেলা ১০টায় মারা যায়। আমার স্বামী তখন থেকে এখন পর্যন্ত পলাতক রয়েছে।
নিয়ামতপুর থানার দায়িত্ব প্রাপ্ত অফিসার ইন চার্জ (ওসি তদন্ত) নাজমূল হক বলেন, বিষয়টি জানার পর আমরা সাথে সাথে ঘটনাস্থলে পৌছে লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করা হয়। আসামী ঘাতক পিতা পলাতক রয়েছে। তাকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। বরেন্দ্র বার্তা/কাকাহ/এই

Close