মহানগর

এই সরকার দেশকে খোলা কারাগারে পরিণত করেছে: কামরুল মনির

বিশেষ প্রতিনিধি: বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি ও সু-চিকিৎসা দাবিতে রাজশাহী জেলা বিএনপির বিক্ষোভ সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তবে এ্যাডভোকেট কামরুল মনির বলেন, এই সরকার দেশকে একটি খোলা কারাগারে পরিণত করে রেখেছে। এই কারাগারের মধ্যে জাতীয় সংসদ নির্বাচন কোনো রাজনৈতিক দলের অধীনে হলে নিরপেক্ষ ও সুষ্ঠু হবে না। তাই নির্বাচনকালীন সরকার হতে হবে নিরপেক্ষ ও নির্দলীয় । তিনি আরো বলেন, সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন স্থানীয় সরকার নির্বাচন। এর মাধ্যমে সরকার পরিবর্তন হয় না। আর জাতীয় সংসদ নির্বাচন সরকার পরিবর্তনের জন্য নির্বাচন। তাই জাতীয় সংসদ নির্বাচন এই সরকারের অধিনে হলে কোনভাবেই নিরপেক্ষ ও প্রভাবমুক্ত হবে না। ২০১৪ সালে শেখ হাসিনা সরকার সারা বিশ্বের কাছে এটাই প্রমাণ করেছে। বর্দমান প্রধানমন্ত্রী দেশের অর্থনীতির চাকা থমকে দিয়েছে। ব্যাংক লুট করে কোটি কোটি টাকা ছেলে ও বোনের নিকট পাচার করেছে। কারা বাংলাদশে ব্যাংক লুট করেছে তাদের তালিকা প্রকাশ করার দাবী জানান তিনি। দেশকে এবং দেশের গণতন্ত্রকে রক্ষা করতে এই হায়নার হাত হতে মুক্ত করতে হবে। আর মুক্ত করার একমাত্র উপায় কঠোর আন্দোলন। বাঁচা মরার এই আন্দোলন সকল নেতাকর্মীকে মাঠে থাকার আহবান জানান তিনি। সেইসাথে ৩০ জুলাই রাজশাহী সিটি নির্বাচনে বিএনপি মনোনীত প্রার্থী বর্তমান মেয়র মোহাম্মদ মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুলকে পুনরায় ভোট দিয়ে বিজয়ী করার আহবান এই নেতা। সেইসাথে সিটি নির্বাচনে যেকোন ধরনের অপশক্তির বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানোর নির্দেশ দেন তিনি।
সভাপতির বক্তব্যে এ্যাডভোকেট তোফাজ্জল হোসেন তপু বলেন, কোনভাবেই এদেশের চাবী আর ফ্যাসিস্ট ও দুর্নীতিবাজ আওয়ামী লীগ সরকারের হাতে তুলে দেওয়া যাবেনা বা নিতে দেওয়া হবেনা। আগামী ৩০ জুলাই সিটি নির্বাচনে দলীয় প্রার্থী বর্তমান মেয়র বুলবুলের জন্য ভোট প্রার্থনা করা এবং ভোট দিয়ে বিজয়ী করার আহবান জানিয়ে সমাবেশ সমাপ্ত করেন।
গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল ১১ টাই নগরীর একটি কমিউনিটি সেন্টারে রাজশাহী জেলা বিএনপি, অঙ্গ ও সহযোগি সংগঠনের আয়োজনে বিক্ষোভ সমাবেশে অনুষ্ঠিত হয়। সমাববেশে সভাপতিত্ব করেন জেরা বিএনপি’র সবাপতি এ্যাডভোকেট তোফাজ্জল হোসেন তপু। সমাবেশে আরও বক্তব্য রাখেন সাবেক এমপি সাত্তার মন্ডল, জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক এ্যাডভোকেট মতিউর রহমান মন্টু, সহ-সভাপতি দেলওয়ার হোসেন, বিশ্বনাথ সরকার, অধ্যাপক জাহাংগীর হোসেন, সামিউল ইসলাম মুন, আব্দুর রাজ্জাক, যুগ্মসম্পাদক রায়হানুল আলম, তাজমুলতান টুটুল, সামসুল আলম মিন্টু, পবা উপজেলা বিএনপি’র আহব্বায়ক শাহাজান আলী, পুটিয়া উপজেলা সভাপতি আমিনুল হক মিন্টু, সাধারণ সম্পাদক মামুন খান, দূর্গাপুর উপজেলা সভাপতি গোলাম সাকলাইন, কাটাখালি পৌর বিএনপি সভাপতি জিয়াউর রহমান, সাধারণ সম্পাদক মোস্তাক, নওহাটা পৌর বিএনপি সভাপতি আব্দুল হামিদ, সাধারণ সম্পাদক মামুন সরকার জেট ও গোদাগাড়ী পৌর সাধারণ সম্পাদক আনোয়ারুল ইসলাম। সমাবেশ পরিচালনা করেন জেলা বিএনপি’র সাংঠনিক সম্পাদক গোলাম মোস্তফা মামুন।  বরেন্দ্র বার্তা/এই

Close