শিরোনাম-২সাহিত্য ও সংস্কৃতি

ক্ষুধার্তের আর্তনাদ

রাগিব আহসান মুন্না

অন্তরটা অজানা শূন্যতায় হাহাকার করে উঠল,
উদাস চিত্তে একরাশ বিস্বাদ অনুভুতি,
আঁধারের বুকচিরে  বুকফাটা চিৎকার,
সারাবেলা রিক্সা টেনেছি কপালে জুটে নাই একমুঠ খাবার।
সারাদিন গেছে, রাত্রি গভীর, চারিদিকে নিস্তব্ধ প্রকৃতি বধির।
সমীরণ দোল তুলে খেলা করে গাছের পাতায়,
সবে ক্লান্ত দেহে শুয়ে পড়েছি পাতা বিছানায়।
হঠাৎ গভীর রাতের নীরবতা ভঙ্গ করে মর্মভেদি আর্তনাদ
এক অন্তর ভেদি তীর যেন আঘাৎ হেনে বিক্ষত করে হৃদয়।
বলে, সারাদিন কিছু খাইনি-কিছু পাইনি ,
প্রানটা বাঁচাবার তরে, কিছু খেতে দাও-মাগো কিছু খেতে দাও!
কোভিডের গভীর রাতে-ঢাকার রাজপথে
পেটের জ্বালা মিটাতে কত যে, আকুতি কতো অনুনয়
অন্ধকারে ক্ষুধার্তের চিৎকারে কেঁপে উঠে লোকালয়।
কান পেতে শোন দূর হতে আসে নতুন প্রভাতের ডাক,
তৈরি হয় নতুনের দল,পুরাতন জরা-জীর্ণ নিপাত থাক।

Close