চাঁপাই নবাবগঞ্জজয়পুরহাটনওগাঁনাটোরপাবনাবগুড়ামহানগরশিরোনামসিরাজগঞ্জস্বাস্থ্য বার্তা

রাজশাহী বিভাগে গত ২৪ ঘন্টায় করোনায় কেউ মারা যায়নি, নতুন শনাক্ত ১৬৫, সুস্থ্য ১৪২

 

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাজশাহী বিভাগে গত ২৪ ঘন্টায় করোনায় কেউ মারা যায়নি, আট জেলার মধ্যে পাঁচটিতে গত ২৪ ঘণ্টায় ১৬৫ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে, সুস্থ্য হয়ে স্বাভাবিক জীবনে ফিরেছেন ১৪২ জন। এই দিনে চাঁপাইনবাবগঞ্জ, নওগাঁ ও পাবনায় কোনো করোনা রোগী শনাক্ত হয়নি।
গত ২৪ ঘন্টায় রাজশাহীতে ৮২ জন, নাটোরে ৬ জন, জয়পুরহাটে ৪ জন, বগুড়ায় ৫০ জন ও সিরাজগঞ্জে ২৩ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে।

রোববার (২৬ জুলাই) দুপুর পর্যন্ত রাজশাহী বিভাগে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১১ হাজার ৮২১ জনে। এ বিভাগে এখন পর্যন্ত মারা গেছেন ১৬২ জন এবং সুস্থ্য হয়েছেন ৫ হাজার ৯৪১ জন। দুপুরে এক প্রতিবেদনে রাজশাহী বিভাগীয় স্বাস্থ্য দপ্তারের পরিচালক ডা. গোপেন্দ্র নাথ আচার্য্য এ তথ্য জানিয়েছেন।

তিনি জানান, রাজশাহী বিভাগে আক্রান্তদের মধ্যে সর্বোচ্চ বগুড়ায় ৪ হাজার ৫৫৫ জন। এছাড়াও মহানগরীতে ২ হাজার ১০৮ জনসহ রাজশাহী জেলায় ২ হাজার ৭৫১ জন, চাঁপাইনবাবগঞ্জে ৪১৬ জন, নওগাঁয় ৯২১ জন, নাটোরে ৩৯৭ জন, জয়পুরহাটে ৬৬৫ জন, সিরাজগঞ্জে ১ হাজার ২৯৪ জন ও পাবনায় ৮২২ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে।

তিনি বলেন, সরকারি হিসেবে এ পর্যন্ত বিভাগের আট জেলার মৃতের সংখ্যা ১৬২ জন। এর মধ্যে রাজশাহীতে ২২ জন, চাঁপাইনবাবগঞ্জে ৪ জন, নওগাঁয় ১৩ জন, নাটোরে একজন, জয়পুরহাটে দুইজন, বগুড়ায় ১০০ জন, সিরাজগঞ্জে ১১ জন ও পাবনায় নয়জনের মৃত্যু হয়েছে করোনাভাইরাসে।

এ পর্যন্ত রাজশাহী বিভাগে সুস্থ্য হয়ে স্বাভাবিক জীবনে ফিরেছেন ৫ হাজার ৯৪১ জন করোনা আক্রান্ত রোগি। এর মধ্যে রাজশাহীর ১০১২, চাঁপাইনবাবগঞ্জে ১৭৫ জন, নওগাঁয় ৬৮৫ জন, নাটোরে ১৬৭ জন, জয়পুরহাট ২০০ জন, বগুড়ায় ২ হাজার ৯৫৮ জন, সিরাজগঞ্জ ৩৮৪ জন ও পাবনায় ৩৬০ জন।

ডা. গোপেন্দ্র নাথ বলেন, করোনাভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধে মানুষের সচেতনতার কোনো বিকল্প নেই। অতি জরুরী প্রয়োজন ছাড়া বাড়ির বাইরে বের হওয়া যাবে না। প্রয়োজনে বের হলে অবশ্যই মাস্ক পরতে হবে। এছাড়াও সামাজিক দুরত্ব বজায় রাখাসহ মেনে চলতে হবে স্বাস্থ্যবিধি। তবেই করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখা সম্ভব বলে মনে করেন এই স্বাস্থ্য কর্মকর্তা।

বরেন্দ্র বার্তা/অপস

Close