মহানগরশিরোনাম

কাজ না পেয়ে মানবেতর জীবন যাপন করছেন রাজশাহীর শ্রমিকেরা

নিজস্ব প্রতিবেদক: চলমান করোনা ভাইরাসের কারনে বিভিন্ন কলকারখানা থেকে অনেক শ্রমিক ছাটাই হয়েছেন। সেইসাথে অনেকে চাকরী হারিয়ে গ্রামের বাড়ির নিজের বসত ভিটায় ফিরেছেন। ছাটাই ও চাকরী হারিয়ে এই সকল ব্যক্তিগুলো এখনো কর্মহীন পড়েছে। সংসারের চহিদা মেটাতে তারা নেমে পড়েছেন শ্রমিকের কাজ করতে। অনেকেই ক্ষেতে খামারে ও যেখানে কাজ পাচ্ছেন সেখানেই তারা কাজ করছেন। এই অবস্থায় দরীদ্র ও অসহায় প্রকৃত শ্রমিকগণ পড়েছেন মহাবিপদে। শ্রমিকের সংখ্যা বেড়ে যাওয়ায় এই অবস্থা হয়েছে বলে শ্রমিকরা জানান। আজ সকাল ৯টার নগরীর কোর্ট ষ্টেশন মোড়ে শতাধিক শ্রমিকদের সাইকেল, ডালি ও কোঁদাল নিয়ে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা যায়।
কেউ একজন ব্যক্তি শ্রমিক নিতে আসলেই তার উপর সকলকেই হুমরী খেয়ে পড়তে দেখা যায়। শ্রমিকদের মধ্যে গোদাগাড়ীর ভায়াল গ্রামের আব্দুস সালাম, ডাঙ্গের হাটের ওয়াসিম আলী, ফেতনা পাড়ার বকুল, মুরারীপুরের সামসুল ও সোনাইকান্দীর জুলফিকারসহ আরো অনেক শ্রমিক বলেন, করোনা ভাইরাস শুরু হয়ে লকডাইন হওয়ায় তারা একেবারেই কর্মহীন হয়ে পড়েছিলেন। এরপর লকডাউন উঠে গেলে কিছু কাজ তারা পেতেন। কিন্তু বিগত একমাসের অধিক সময় ধরে তারা বেশীর ভাগ দিন কাজ পাচ্ছেন না। ফলে প্রায়দিনই পরিবারের সদস্যদের মুখে দু-বেলা খাবার তুলে দিতে পারছেন না তারা । অতি কষ্টের মধ্যে দিনাদিপাত করছেন বলে জানান শ্রমিকরা।
পরিবার পরিজনদের মুখে খাবার তুলে দেয়ার লক্ষ্যে, কর্মসংস্থান সৃষ্টি করে তাদের কাজ প্রদান করার জন্য উপস্থিত সকল শ্রমিকগণ সরকারের প্রতি অনুরোধ করেন। সেইসাথে এই দুর্দিনে তাদের খাদ্য সামগ্রী কিংবা আর্থিক সহযোগিতা করার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষন করেন এই শ্রমিকগণ।
বরেন্দ্র বার্তা/ফকবা/ নাসি

Close