পবামোহনপুর

এম পি আয়েনের সাংবাদিক পেটানো বক্তব্য নিয়ে বিভিন্ন গণমাধ্যমে তোলপাড়

ভ্রাম্যমান প্রতিনিধি: রাজশাহীর পবা মোহনপুর ৩ আসনের এম পি আয়েন উদ্দিন গত ২৭ আগষ্ট শোকের মাসের অয়োজনে বক্তব্য দিতে গিয়ে তিনি রাজশাহীর সাংবাদিকদের নিয়ে যে বক্তব্য দিয়েছেন সেটি সাংবাদিক মহল সহ ভাইরাল হয়েছে যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে।

এই নিয়ে রাজশাহীতে কর্মরত সাংবাদিক সহ বিভিন্ন মহলে চলছে আলোচনা সমালোচনার ঝড়।

এম পি আয়েন তার বক্তব্যে বলেন, মাইরের উপর কোন ঔষধ নাই। তিনি সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে বলেন, আপনারা কি শুরু করেছেন। বিশেষ করে অনলাইন পত্রিকার সাংবাদিকদের তিনি বিভিন্ন ভাবে হয়রানি মূলক কথা বলেন। তিনি সাংবাদিকদের প্রকাশ্যে মারার হুকুম দেয়ায় একদিকে সাংবাদিকদের ছোট করা হয়েছে অপরদিকে অপরাধিদের উসকানি দেয়ার মত ঘটনা ঘটেছে বলে মন্তব্য করেছেন সুশিল সমাজের অনেকেই।

একটি সূত্র বলছে চলতি বছরে পবা মোহনপুরে সব চাইতে বেশী পরিমান পুকুর খনন করা হয়েছে যা ছিল পুরোটাই নিয়ম বহির্ভুত। আর এই সকল পুকুর খননের আড়ালে ছিলেন সাংসদ আয়েন উদ্দিন। আর এই সকল পুকুর খননের কাজে সাংবাদিকদের সাথে গড় মিল শুরু হয় সাংসদ ও তার লোকজনের। আর এরই ধারাবাহিকতায় এই সাংসদ ক্ষোভে এমন কথা বলেন।

তবে এমন কথার জন্য সাংসদ আয়েন উদ্দিন বরেন্দ্র বার্তার ভ্রাম্যমান প্রতিনিধিকে বলেন, আসলে আমি মাদক আসক্ত সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে এমন কথা বলেছি। এ ছাড়া ও তিনি বলেন তথ্যমন্ত্রী আমার কাছের মানুষ তাই খোঁজ খবর আমার নিকট থাকে। এছাড়াও একজন মাদক ব্যবসায়ী গলায় কার্ড ঝুলিয়ে ঘুরছে সেটির বিষয়ে বলেছি। সকল সাংবাদিক মাদক আসক্ত নয়, তাই বলে কি পবা মোহনপুরে সাংবাদিক সংবাদ সংগ্রহ করতে যাবেনা এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন আসলে আমি ক্লান্ত ছিলাম তাই বলাটা ভিন্ন ভাবে হয়েছে।

এই নিয়ে রাজশাহীতে কর্মরত সিনিয়র সাংবাদিকদের এক অংশ বলেন, এম পির এই বক্তব্য মানবাধিকার লংঘন হয়েছে। একজন দুষ্টু পুলিশ সদস্যের জন্য যেমন সকল পুলিশ সদস্য অপরাধি হয়না। একজন রাজনৈতিক ব্যক্তি অনিয়মের দায়ে জেল হাজতে যায় ঠিক তেমনি দুই একজন দুষ্টু সাংবাদিকের কারণে সকল সাংবাদিক কে গালি দেওয়া যাবেনা।

তারা বলেন, এমপির ক্ষমতা দিয়ে তাদের পরিচয় পত্র বাতিল করা সহ ভিন্ন ব্যবস্থা নিতে পারতেন তিনি। নিয়ম বহির্ভুত ভাবে পবা ও মোহনপুরে পুকুর খননের কারণে এই অঞ্চলে জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হয়ে সাধারন মানুষরা এখন বিপাকে।

বরেন্দ্র বার্তা/সরা/অপস

Close