বাগমারাশিরোনাম-২

ভবানীগঞ্জ পৌর আ’লীগের উদ্যোগে জাতীয় শোক দিবসের আলোচনা সভায় ও দোয়া মাহফিল

সমিত রায়, বাগমারার : রাজশাহীর বাগমারায় ভবানীগঞ্জ পৌর আওয়ামীলীগের উদ্যোগে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও তাঁর পরিবার বর্গের ৪৫তম শাহাদত বার্ষিকী ও২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে।
শনিবার বিকেল ৪টায় ভবানীগঞ্জ নিউ মার্কেট অডিটরিয়ামে ভাবানীগঞ্জ পৌরআ’লীগের সভাপতি, মেয়র আব্দুল মালেক মন্ডলের সভাপতিত্বে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, বাগমারা আসনের সংসদসদস্য, উপজেলা আ’লীগের সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার এনামুল হক। প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ছিল বাঙ্গালীর প্রাণ। তাঁকে স্বপরিবারে হত্যা করে তাঁর সেই মুছে ফেলার চেষ্টা করা হয়েছিল। কিন্তু হত্যাকারীদের সেই স্বপ্ন বাস্তবায়ন হতে দেয়নি তাঁর সুযোগ্য কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। জাতির জনকের হত্যাকারীদের বিচার করে চলেছেন তিনি। বাংলার মাটিতে তাদের সেই জঘণ্যতম হত্যাকান্ডের বিচার হবে। বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নকে বাস্তবায়ন করে চলেছেন প্রধানমন্ত্রীশেখ হাসিনা। যারা বিনা কারনে বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করছে তাদেরকে ছাড় দেয়া হবে না। কোন ভাবেই তাঁর সেই আদর্শ থেকে পিছু হঠা যাবে না। কারণ তাঁর নেতৃত্বে বাংলাদেশ স্বাধীন হয়েছে। আমরা স্বাধীন দেশে ইচ্ছা মতো চলাচল করতে পারছি। সেটা একমাত্র বঙ্গবন্ধুর জন্য। তাঁকে ভুলে গেলে চলবে না। তাঁর সেইত্যাগের ইতিহাস সবাইকে মনে রাখতে হবে। সর্বদায় শত্রুর বিরুদ্ধে প্রস্তুত থাকতে হবে। কোন ভাবেই যেন ষড়যন্ত্রকারীরা করো ক্ষতি করতে না পারে। বাঙ্গালী জাতির সেই মহামানব আজও সকলের হৃদয়ে বহমান।

তিনি আরো বলেন, জাতির জনকের আদর্শকে সবার অন্তরে ধারণ করতে হবে।সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করতে হবে। দলকে তৃণমূল পর্যায় থেকে শক্তিশালী করেগড়ে তুলতে হবে। দলের মধ্যে কোন রকম বিভেদ সৃষ্টি করা যাবে না।দেশে সুশাসন প্রতিষ্ঠিত করতে চাইলে আগামী দিনের যে কোন নির্বাচনে ঐক্যবদ্ধ হয়ে সবাইকে দলীয় প্রার্থীর বিজয় নিশ্চিত করতে হবে। জাতির জনকেরআদর্শকে ধারণ করে এগিয়ে চলেছে শেখ হাসিনা। তাঁর জন্য দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলের মানুষের মুখে হাসি ফুটেছে। বৃদ্ধি পেয়েছে শিক্ষা সহ সকল উন্নয়ন। ভবানীগঞ্জ পৌর আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল জলিল মাস্টারের পরিচালনায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, বাগমারা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অনিল কুমার সরকার, উপজেলা আ’লীগের সিনিয়ন সহ-সভাপতি মতিউর রহমান টুকু, ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ গোলাম সারওয়ার আবুল, ভবানীগঞ্জ বণিক সমিতির সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম হেলাল, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যানমমতাজ আক্তার বেবী, উপজেলা মহিলা লীগের সাধারণ সম্পাদক কহিনুর বানু। এ সময় উপস্থিত ছিলেন অবসর প্রাপ্ত শিক্ষক বিভূতী ভূষণ সরকার, উপজেলাআ’লীগের সহ-সভাপতি আফতাব উদ্দীন আবুল, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সিরাজউদ্দীন সুরুজ, দপ্তর সম্পাদক ইসমাইল হোসেন বেঙ্গল, সহ-দপ্তর সম্পাদক নুরুল
ইসলাম, শ্রম সম্পাদক মোকবুল হোসেন, সদস্য উপাধ্যক্ষ আব্দুল বারীক, আলী হাসান, বকুল খরাদী, কাউন্সিল হাচেন আলী, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আসাদুজ্জামান আসাদ, উপজেলা মহিলা লীগের সভাপতি মরিয়ম বেগম প্রমুখ।এ সময় উপজেলা, ইউনিয়ন, পৌরসভা ও ওয়ার্ড আ’লীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক সহ অংগ সহযোগি সংগঠনের নেতৃবৃন্দ এবং বণিক সমিতির সদস্যবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। আলোচনা সভা শেষে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানসহ সকল শহীদ এবং গ্রেনেড হামলায় নিহত সকলের আত্মার শান্তি কামনায় দোয়া অনুষ্ঠিত হয়।
বরেন্দ্র বার্তা/অপস

Close