খেলাগোদাগাড়ি

কাঁকনহাটে দুইদিনব্যাপি ফুটবল টুর্ণামেন্ট সমাপ্ত

নিজস্ব প্রতিবেদক: গোদাগাড়ীর কাঁকনহাট পৌরসভার পাঁচগাছিয়া মাঠে দুইদিনব্যাপি ৯ম বার্ষিকী শেখ রাসেল ফুটবল টুর্ণামেন্ট আজ শনিবার সন্ধ্যায় চুড়ান্ত পর্বের খেলার মধ্যে দিয়ে শেষ হয়েছে। পাঁচগাছিয়া যুব উন্নয়ন সমিতির আয়োজনে পৌর এলাকার পাঁচগাছিয়া মাঠে আয়োজিত এই টুর্ণামেন্টে মোট ১৬টি দল অংশ গ্রহন করে। বিকেলে ঈশ্বরীপুর স্পোটিং ক্লাব ও প্রশাদপাড়া ফুটবল টিমের মধ্যে চুড়ান্ত খেলা অনুষ্ঠিত হয়। খেলায় ঈশ্বরীপুর স্পোটিং ক্লাব প্রশাদপাড়া ফুটবল টিমকে ট্রাইবেকারে ৫-৩ গোলে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়। এদিকে তৃতীয় স্থান নির্ধারনীতে সুন্দরপুর শাপলা স্পোটিং ক্লাব ট্রাইবেকারে আস্তাপুকুর পিপিলিকা যুব সংঘকে ৪-১ গোলে হারায়।
কাঁকনহাট পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও পৌর মেয়র আলহাজ্ব আব্দুল মজিদ প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে ফাইনাল খেলার উদ্বোধন করেন। এ সময়ে তিনি বলেন, খেলাধুলার মাধ্যমে যেমন শরীর ও মন উভয় ভাল থাকে, তেমনী মাদক থেকে দূরে থাকা যায়। এছাড়ার ক্রীড়ার মাধ্যমে দ্রুত পরিচিতি লাভ করা যায়। বাংলাদেশ খুব অল্প সময়ের মধ্যে এই ক্রীড়ার মাধ্যমে বিশ্বের দরবারে আরো বেশী করে মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়েছে।
যে সকল দেশ বাংলাদেশকে চিনতা, সে সকল দেশ এখন খেলা নিয়ে চিন্তা করলে বাংলাদেশ নিয়ে ভাবে। তিনি আরো বলেন, তিনি এ পর্যন্ত কাঁকনহাট পৌর সভা থেকে শুরু করে আশে পাশে যত ধরনের খেলাধুলা হয় সব গুলোতেই প্রায় পৃষ্ঠোপোষকতা করেন। আগামীতেও তাঁর এই সহযোগিতা অব্যাহত থাকবে বলে বক্তব্যে উল্লেখ করেন মেয়র। পাঁচগাছিয়া যুব উন্নয়ন সমিতির সভাপতি কাজিম উদ্দীনের সভাপতিত্বে এসময়ে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কাঁকনহাট পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হুমায়ন কবীর, সহ-সভাপতি আব্দুল মালেক মাস্টার, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন শওকত, যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক তরিকুল ইসলাম ও কৃষকলীগ সভাপতি কল্লোল মোল্লা।
এছাড়াও পৌর আওয়ামী লীগের ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক ক্বারী ইয়াসিন আলী, ২নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ সভাপতি শরিফুল ইসলাম মোল্লা, ১নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ সভাপতি ফজলুর রহমান ও অত্র সমিতির সাধারণ সম্পাদক জামিল রায়হানসহ অন্যান্য সকল সদস্য ও গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন। খেলা শেষে প্রধান অতিথি চ্যাম্পিয়ন দলকে নগদ আটার হাজার, রানার-আপ দলকে তের হাজার এবং তৃতীয় স্থান অধিকারী দলকে সাত হাজার টাকা করে প্রদান করেন।
বরেন্দ্র বার্তা/ফকবা/অপস

Close