মহানগরশিরোনাম

পুলিশ মাদক ব্যবসায়ীকে সহযোগিতা ও মাদক সেবন করলে চাকরী থাকবে না: ডিআইজি

নিজস্ব প্রতিবেদক: কোন পুলিশ সদস্য যদি মাদক ব্যবসায়ীদের সহযোগিতা এবং মাদক সেবন করেন, তা যদি প্রমাণিত হয় তাহলে সেই পুশি সদস্যর চাকরী থাকবেনা। মাদক নিয়ে কোন প্রকার আপস নয়। এছাড়াও কাউকে মাদক দিয়ে ফাঁসিয়ে অর্থ আদায় এবং মিথ্যা মামলা করে হয়রানী করলে সে পুলিশ বাহিণীতে থাকতে পারবেনা। এমন মন্তব্য করেছেন পুলিশের রাজশাহী রেঞ্জের নবনিযুক্ত উপমহাপরিদর্শক (ডিআইজি) আবদুল বাতেন। রাজশাহীতে যোগ দেয়া উপলক্ষে মঙ্গলবার সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে তিনি এই কথাগুলো বলেন।
তিনি আরো বলেন, পুলিশ বাহিনীর একার পক্ষে মাদক নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব নয়। এক্ষেত্রে সমাজের জনগণকে এগিয়ে আসতে হবে। সাংবাদিক পুলিশ একই সূত্রে গাঁথা। সংবাদিক না থাকলে কোন কাজই দেশের জনগনের সামনে আসবেনা। তিনি বলেন, বিগত স্থানে তিনি স্থানীয় সংবাদ পত্রের প্রকাশিত প্রতিবেদন দেখে কোন প্রকার দরখাস্ত কিংবা আবেদন ছাড়াই পদক্ষেপ গ্রহন করতেন। এখানেও এর ব্যতিক্রম হবেনা। সেজন্য সত্য ও বস্তুনিষ্ট সংবাদ পরিবেশন করার জন্য সাংবাদিকদের অনুরোধ করেন। সেইসাথে সাংবাদিকদের সহযোগিতা কামনা করেন ডিআইজি।
তিনি বলেন, পুলিশ সদস্য কোন অন্যায় করে ছাড় পাবে না। সেবা প্রত্যাশীদের সর্বোচ্চ সেবা দেয়া হবে। সংশ্লিষ্ট ইউনিট যদি ব্যবস্থা না নেয় তাহলে রেঞ্জ ডিআইজিকে জানালে ব্যবস্থা নেয়া হবে। সুষ্ঠু পুলিশিং ব্যবস্থা করতে তার সর্বোচ্চ প্রচেষ্টা থাকবে বলেও জানান তিনি। মতবিনিময় সভায় রাজশাহী রেঞ্জের অতিরিক্ত ডিআইজি টিএম মোজাহিদুল ইসলাম, রাজশাহী জেলার পুলিশ সুপার শহিদুল্লাহ ও অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ইফতেখায়ের আলমসহ অন্যান্য পুলিশ কর্মকর্তারা এবং বিভিন্ন প্রিন্ট, ইলেক্ট্রনিক্স মিডিয়া ও অনলাইন পোর্টালের সম্পাদক ও সাংবাদিকগণ উপস্থিত ছিলেন।
উল্লেখ্য উপমহাপরিদর্শক (ডিআইজি) আবদুল বাতেন সোমবার রাজশাহী রেঞ্জের দায়িত্ব নেন। আজ সকালে নিজের কার্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন।
বরেন্দ্র বার্তা/ফকবা/অপস

Close