শিক্ষাঙ্গন বার্তাশিরোনাম

রাবিতে কোটা আন্দোলনকারীদের ওপর ফের ছাত্রলীগের হামলা

রাবি প্রতিনিধি: রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে (রাবি) কোটা সংস্কার আন্দোলনকারীদের ওপর বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের হামলায় ৪ জন আহত হয়েছে।

আজ সোমবার (২ জুলাই) বিকেল চারটায় বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল ফটকের সামনে ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা লাঠিসোটা, রড় ও লোহার পাইপ,হাতুড় দিয়ে শিক্ষার্থীদের ওপর অতর্কিত হামলা চালায়।

ঘটনায় গুরুতর আহত অবস্থায় ইসলামের ইতিহাস বিভাগের শিক্ষার্থী তরিকুল ইসলাম তারেককে পুলিশ উদ্ধার করে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে নেয়া হয়েছে। এছাড়াও হামলার ঘটনায় আরো ১১ জন আহত হয়েছে। তবে তাদের নাম-পরিচয় এখনো পাওয়া যায়নি।

সরেজমিনে দেখা যায়, জাতীয় পতাকা হাতে বিশ্বিবিদ্যালয় সংলগ্ন বিনোদপুর দিক থেকে আসছিলেন কোটা আন্দোলনকারীরা। এদিকে আন্দোলনকারীদের কর্মসূচীর খবর পেয়ে বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি গোলাম কিবরিয়া ও সাধারন সম্পাদক ফয়সাল আহমেদ রুনুর নেতৃত্বে মূল ফটকে জমায়েত হয় ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। এসময় তাদের হাতে লাঠি সোটা, জিআই পাইপ, হাতুড়ি, রড দেখা যায়।

আন্দোলনকারীদের দেখে ধাওয়া দেয় ছাত্রলীগ। এসময় একজন পড়ে গেলে তাকে লাঠি, রড, হাতুরি দিয়ে উপর্যুপরি মারধর করতে থাকে ছাত্রলীগ নেতারা। রক্তাক্ত অবস্থায় আহত শিক্ষার্থীকে পুলিশের সহায়তায় রাজশাহী মেডিকেল করেজ হাসপাতাল (রামেক) পাঠানো হয়েছে।

এ বিষয়ে ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ফয়সাল আহমেদ রুনু বলেন, ছাত্রলীগের দ্বারা কেউ আহত হয়নি। এর অতিরিক্ত কোন কথা বলতে রাজি হননি তিনি।

এদিকে ঘটনার সময়ে উপস্থিত থাকা মতিহার থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) মাহবুব আলম ছাত্রলীগ নেতাদের ক্যাম্পাসের ভিতরে চলে যাওয়ার নির্দেশ দেন।

বিশ্ববিদ্যালয় প্রক্টর অধ্যাপক লুৎফর রহমান বলেন, ছাত্রলীগ ও কোটা আন্দোলনকারীদের মাঝে সংঘর্ষ হয়েছে। একজন আহত হয়েছে বলে জানা গেছে। ওই শিক্ষার্থীকে পুলিশের সহায়তায় রামেক হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

বরেন্দ্র বার্তা/অাসশ

Close