মহানগরশিরোনাম

সম্প্রসারিত মেট্রোপলিটন এলাকা রাসিকের অন্তর্ভুক্ত করার দাবি

নিজস্ব প্রতিবেদক: সম্প্রসারিত মেট্রোপলিটন এলাকাকে রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনে অন্তর্ভুক্ত করার দাবিতে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার বেলা ১১টার দিকে রাজশাহী নগরীর সাহেব বাজার জিরোপয়েন্টে এ মানববন্ধনের আয়োজন করে সিটি কর্পোরেশন সংলগ্ন পৌরসভা ও ইউনিয়নসমূহের সর্বস্তরের জনসাধারণ।
ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সাইফুল বারী ভুলুর সভাপতিত্বে মানববন্ধনে বক্তব্য দেন, ইউসুফপুর ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ্ব শফিউল আলম রতন, হরিয়ান ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি ইয়াসিন আলী, সভাপতি সাইদুর ইসলাম বাদল, কাটাখালি পৌরসভার ৫নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোতালেব মোল্লা, নওহাটা পৌরসভার বাসিন্দা আমিনুল ইসলাম, হড়গ্রাম ইউপির বাসিন্দা ও জেলা যুবলীগের উপ-প্রচার সম্পাদক শাহাদত হোসেন পিন্টু, ঘাতক দালাল নির্মল কমিটি চন্দ্রিমা থানার আহ্বায়ক হাফেজা খাতুন হ্যাপি, কাটাখালি পৌরসভার বাসিন্দা আবু সামা ও পারিলা ইউপির বাসিন্দা প্রভাষক মনিরুজ্জামান বাবু প্রমুখ ।
মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, রাজশাহী মেট্রোপলিটন এলাকা সম্প্রসারণের মাধ্যমে ৪টি থানা থেকে ১২টি থানা করা হয়েছে, ফলে সম্প্রসারিত এলাকার আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতির আমূল পরিবর্তন হয়েছে এবং আমরা এর সুফল পাচ্ছি। বিগত ১৯৯২ সালে ৪৮.৪০ বর্গকিলোমিটার মেট্রোপলিটন এলাকা নিয়ে রাজশাহী সিটি কর্পোরেশন প্রতিষ্ঠিত হয়, সেক্ষেত্রে সম্প্রতি সম্প্রসারিত মেট্রোপলিটন এলাকার অধিবাসী হিসেবে উন্নত নাগরিক সেবা প্রাপ্তির স্বার্থে উল্লিখিত এলাকাকে রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের অন্তর্ভুক্ত করার জোর দাবি জানায় বক্তারা।
বক্তারা বলেন, একদিকে উপজেলা প্রশাসন অন্যদিকে মেট্রোপলিটন এলাকা, এছাড়াও বিচারিক আদালত মেট্রো হওয়ায় বর্তমানে আমরা দ্বৈত্য শাসন ব্যবস্থায় পরিচালিত হচ্ছি। আমরা এই দ্বৈত্য শাসন থেকে মুক্তি চাই। পবা উপজেলার নওহাটা ও কাটাখালি পৌরসভা দুটি রাজশাহী সিটি কর্পোরেশন এলাকা সংলগ্ন এবং এর মাঝে অন্য কোন ইউনিয়ন নেই। নগরীর সন্নিকটে হওয়ায় এ এলাকায় অপরিকল্পিতভাবে নগরায়ন ও শিল্পায়ন হচ্ছে, ফলে এখানকার পরিবেশ মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। পরিবেশবান্ধব পরিকল্পিত নগরায়নের জন্য সম্প্রসারিত রাজশাহী মেট্রোপলিটন (আরএমপি) এলাকাভুক্ত কাটাখালী থানার কাটাখালী পৌরসভা, শাহমখদুম, পবা ও এয়ারপোর্ট থানার নওহাটা ইউনিয়ন, পারিলা ইউনিয়ন, হরিয়ান ইউনিয়ন, বেলপুকুর থানার বেলপুকুর ইউনিয়নের ও পুঠিয়া থানার বানেশ্বর ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকাকে রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের অন্তর্ভুক্ত করার জোর দাবি জানায় তারা।
বক্তারা আরও বলেন, আমরা জানতে পেরেছি রাজশাহী সিটি কর্পোরেশন কর্তৃক এলাকা সম্প্রসারণসহ মহানগরীকে মেগাসিটিতে রূপান্তর করার উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে, একটি প্রস্তাব মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়েছে। আমরা সিটি কর্পোরেশনের এই উদ্যোগকে স্বাগত জানাই এবং দ্রুত বাস্তবায়নের জোর দাবি জানাচ্ছি।
বরেন্দ্র বার্তা/অপস

Close