মহানগরশিরোনাম

বিদেশি শক্তির চাপে রোহিঙ্গাদের ভাসানচরে স্থানান্তরে বিলম্ব: পররাষ্ট্র মন্ত্রী

 

নিজস্ব প্রতিবেদক: এনজিও ও বিদেশি শক্তির চাপে রোহিঙ্গাদের ভাসানচরে স্থানান্তরে বিলম্ব হচ্ছে বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী একে আবদুল মোমেন
রোববার বেলা ১১টায় রাজশাহী কলেজে শিক্ষকদের এক অনুষ্ঠানে অংশ নেয়ার আগে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে এ কথা জানিয়েছেন।

মন্ত্রী আরেক প্রশ্নের জবাবে বলেন, জিএসপি নিয়ে তারা ভাবছেন না। তবে পণ্য রফতানিতে আমেরিকার নতুন সরকারের কাছে ট্যারিফ কমানোর দাবি থাকবে। পরে মন্ত্রী রাজশাহী কলেজ মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন। তখন তিনি বলেন, বাংলাদেশের দুটি বিষয় উন্নয়নে বড় ভূমিকা রাখবে। এর একটি হলো মানবসম্পদ, অন্যটি নদী-নালা।

তিনি বলেন, বাংলাদেশের মানবসম্পদকে দক্ষ করে গড়ে তুলতে হবে। এ জন্য তাদের দক্ষ করে গড়ে তুলতে হবে। বর্তমানে প্রবাসিরা বছরে ১৮ বিলিয়ন ডলার রেমিট্যান্স পাঠান। এটি আরও বৃদ্ধি করা সম্ভব। তাছাড়া দেশে প্রায় এক হাজার ৩০০ নদী-নালা রয়েছে। সেগুলোকে কাজে লাগাতে হবে।

মতবিনিময় সভায় সভাপতিত্ব করেন রাজশাহী কলেজ অধ্যক্ষ হবিবুর রহমান। সভায় কলেজের শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন। এর আগে সকালে মন্ত্রী নগরীর কাদিরগঞ্জে জাতীয় নেতা শহীদ এএইচএম কামারুজ্জামানের সমাধীতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন। পরে তিনি রাজশাহী কলেজ চত্বরে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।

এর আগে তিনি রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের বরেন্দ্র গবেষণা জাদুঘর পরিদর্শন করেন। এ সময় তিনি জাদুঘরের ভূয়সী প্রশংসা করেন। তিনি গ্রন্থাগারের জন্য তাঁর লেখা ও সম্পাদিত কয়েকটি বই উপহার দেন।

সেখানে অন্যদের মধ্যে বিশ্বিবিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর এম আব্দুস সোবহান, উপ-উপাচার্য প্রফেসর আনন্দ কুমার সাহা, উপ-উপাচার্য প্রফেসর চৌধুরী মো. জাকারিয়া, কোষাধ্যক্ষ প্রফেসর এ কে এম মোস্তাফিজুর রহমান আল-আরিফ, রেজিস্ট্রার প্রফেসর এমএ বারী, প্রক্টর প্রফেসর মো. লুৎফর রহমান, জনসংযোগ দপ্তরের প্রশাসক অধ্যাপক ড. মো. আজিজুর রহমান, জাদুঘরের পরিচালক এআরএম আব্দুল মজিদ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।
বরেন্দ্র বার্তা/অপস

Close