গোদাগাড়িশিরোনাম-২

কাঁকনহাট পৌরসভার উন্নয়নের রুপকার মেয়র মজিদ: পৌরবাসী

নিজস্ব প্রতিবেদক: ২০০২ সালে এই কাঁকনহাট পৌরসভা প্রতিষ্ঠার সময় থেকে বর্তমান মেয়র আলহাজ্ব আব্দুল মজিদ মেয়র হিসেবে আছেন। জনগণ তাঁকে বার বার বিপুল পরিমান ভোট দিয়ে জয়যুক্ত করেন। এর সুবাদে মেয়র মজিদ জনগণের সেবা প্রদান করে যাচ্ছেন বলে কাঁকনহাট পৌর সভার একাধিক ব্যক্তি বলেন। কাঁকনহাট ফাজিল মাদ্রাসার প্রিন্সিপাল জালাল উদ্দিন দেওয়ান বলেন, মেয়র মজিদ একজন পরোপোকারী মানুষ। তিনি কখনো কাউকে না বলতে শিখেননি। শিক্ষা থেকে শুরু করে সকল ক্ষেত্রে তিনি এই পৌরসভার জনগণকে সহযোগিতা করে আসছেন।
এদিকে পৌরবাসী ডলারসহ আরো নারী পুরুষ বলেন, এই মেয়রের কারনে কাঁকনহাটে নেই কোন প্রকার রাজনৈতিক দন্দ। নেই ধর্মীয় সংঘাত ও মাদকের মেলা। তিনি সবাইকে একটি পরিবারের ন্যায় মনে করে পৌরসভা পরিচালনা করছেন বলে জানান তারা।

এদিকে কাঁকনহাট পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হুমায়ন কবীর বলেন, কাঁকনহাট পৌর আওয়ামী লীগ, অঙ্গ ও সহযোগি সংগঠনের নেতাকর্মী ও আওয়ামী সমর্থকগণ সবাই বর্তমান মেয়র মজিদের পক্ষে কাজ করছেন। আগামী নির্বাচনে তারা কেউ অন্য কোন ব্যক্তির পক্ষে কাজ করবেনা বলে জানান তিনি। তিনি আরো বলেন, মেয়র মজিদ বিগত পাঁচ বছরে কাঁকনহাট পৌরসভা রাজশাহী জেলার একটি “ক” শ্রেণীর নগর অঞ্চল। নগর অঞ্চলের নাগরিক সেবার মধ্যে সর্বাধিক উল্লেখযোগ্য সেবাগুলোর মধ্যে অন্যতম সেবাগুলো হলো যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়ন, আরবান ড্রেনেজ এর উন্নয়ন, সুপেয় পানি সরবরাহ নিশ্চিতকরণ, সড়ক বাতি দ্বারা পৌর এলাকা আলোকিত করণ, বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান, গোরস্থান ও শ্বসানঘাট ইত্যাদির উন্নয়ন, পুকুর ঘাট নির্মাণ, প্রটেকশান ওয়াল নির্মাণ, হাট বাজার ও মার্কেট উন্নয়ন করেছেন।

এছাড়া নারী, স্বাস্থ্য সেবা ও মানবসেবা উন্নয়ন এর জন্য বিভিন্ন কার্যক্রম গ্রহন করা এরমধ্যে অন্যতম। এছাড়া অন্যান্য কার্যক্রম যেমন বয়স্ক, বিধবা ও প্রতিবন্ধী ভাতা, টিআর কার্যক্রম, ভিজিএফ এর চাল বিতরণ ও প্রতিটি সম্প্রদায়ের ধর্মীয় উৎসবে পৌর জনগনকে উপহার প্রদান করেন তিনি। তিনি আরো বলেন, কাঁকনহাট পৌরসভার মেয়র আলহাজ্ব আব্দুল মজিদ অন্যান্য সময়ের ন্যায় বিগত ৫ বছরে নাগরিক সেবার সকল কার্যক্রম অত্যন্ত সফলতার সাথে সম্পন্ন করেছেন এবং বর্তমানেও এই কার্যক্রম চলমান আছে।

এদিকে কাঁকনহাট পৌর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন শওকত, যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক তরিকুল ইসলাম, কৃষকলীগের সভাপতি কল্লোল, বিভিন্ন ওয়ার্ড সভাপতি সাইফুর রহমান বকুল, মোজাহার আলী, শরিফুল ইসলাম ও আনারুল ইসলামসহ অন্যান্য সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকগণসহ সকল নেতাকর্মী বলেন, কাঁকনহাট পৌরসভার উন্নয়নের রুপকার হচ্ছে মেয়র আব্দুল মজিদ। তিনি এই কয়েক বছরে পৌরসভাকে অনেকাংশে শহরে পরিণত করেছেন। সার্বক্ষণিক দিনের আলোর ন্যায় পৌরসভা ঝকঝক করে। নেই কোন প্রকার জলাবদ্ধতা। হয়েছে শিক্ষা ও ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানের উন্নয়ন। শুধু তাই নয় ক্রীড়াতেও তিনি সমান্তরালভাবে সহযোগিতা করায় কাঁকনহাটে ক্রীড়াতে অভুতপূর্ব উন্নয়ন ঘটেছে।

তারা আরো বলেন, মেয়র মজিদ নিজের কথা কখনো ভাবেন না। সকাল খেকে রাত্রী পর্যন্ত তাঁর একটাই চিন্তা পৌরবাসীকে নিয়ে। পৌরবাসী যেন বিশুদ্ধ পানি পান করতে পারে তারজন্য স্থাপন করেছেন গভীর নলকুপ। এগুলো চলমান আছে বলে জানান তারা। নেতৃবৃন্দসহ জনগণ আগামী নির্বাচনে তাঁকে নৌকার কান্ডারী হিসেবে আবার দেখতে চান।

কাঁকনহাটের উন্নয়ন ও আগামী পৌর নির্বাচন বিষয়ে জানতে চাইলে কাঁকনহাট পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও পৌর মেয়র আলহাজ্ব আব্দুল মজিদ বলেন, তিনি কাঁকনহাট পৌরবাসীর জন্য তাঁর সবকিছু সমর্পন করেছেন। তাঁর একটাই চিন্তা পৌরসভার উন্নয়ন। তিনি কোনদিন নিজেকে নিয়ে ভাবেন নি এবং আগামীতেও তাঁর এধরনের কোন চিন্তা নাই। তিনি বলেন, নমুনেশন নিয়ে এখানে বাড়াবাড়ি করার কিছু নাই। তানোর-গোদাগাড়ী আসনের সংসদ সদস্য ও উপজেলা আওয়ামী লীগ ও কেন্দ্র যাকে পছন্দ করবেন তিনিই হবেন এখানকার নৌকার কান্ডারী। তবে আবার নৌকার কান্ডারী তিনি হবেন বলে আশা ব্যক্ত করেন। এছাড়াও দল যাকে নৌকার মাঝি করবেন তাঁর হয়ে তিনি কাজ করবেন বলেন জানান মেয়র মজিদ।

উন্নয়নে বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, পৌর সভার যা উন্নয়ন করেছেন তা দৃশ্যমান। কিন্তু একটি চক্র এই পৌরসভার উন্নয়ন চায়না। তারা সার্র্বক্ষনিক পৌর উন্নয়ন থমকে দিতে বিভিন্নস্থানে মিথ্যা অভিযোগ প্রদান করে। তাদের কারনে কিছুদিন সকল প্রকার উন্নয়ন কার্যক্রম বন্ধ ছিলো। এটা না হলে আরো উন্নয়ন পৌরবাসী দেখতে পেতেন বলে জানান তিনি। নির্বাচনকে সামনে রেখে এখন আবার এই ষড়যন্ত্রকারী চক্রটি মাথা চাঁড়া দিয়ে উঠেছে।

বরেন্দ্র বার্তা/ ফকবা/ নাসি

Close