মহানগরশিরোনামসাহিত্য ও সংস্কৃতি

বিটিভি’র লোকালয় অনুষ্ঠানের ৩৭তম বর্ষ পূর্তিতে আনন্দ আয়োজন

নিজস্ব প্রতিবেদক: বাংলাদেশ টেলিভিশনের (বিটিভি) মাধ্যমে ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর সংস্কৃতি সংরক্ষণ ও বিকাশের উদ্যোগের জন্য বিগত ৩৭ বছর পূর্বে লোক লোকালয় অনুষ্ঠান শুরু হয়। বনফুল অনুষ্ঠান থেকে লোক লোকালয় শুরু করেন এই অনুষ্ঠানের উপস্থাপক ও সংগঠক আতাউর রহমান রানা। আজ বুধবার এই অনুষ্ঠানের ৩৭ বছর পূর্তি হলো। এ উপলক্ষে রাজশাহী জেলার শিল্পী ও সংগঠকবৃন্দের আয়োজনে এবং ডেভেলপমেন্ট ইনিসিয়েটিভ ফর ইনক্লুসিভ পিপল এর সহযোগিতায় মোমবাতি প্রজ্জলন ও কেক কাটা হয়।

নগরীর আদিবাসী শিল্পীবৃন্দ পশ্চিম টালিপাড়ার একটি বাড়িতে করোনার কারনে অত্যন্ত ঘরোয়া পরিবেশে ৩৭টি মোমবাতি প্রজ্জলন করে বর্ষপূতির কেক কাটেন। শেষে এই অনুষ্ঠানের মাধ্যমে আদিবাসীদের বৈচিত্রময় জীবন ও ঐতিহ্যময় সংস্কৃতি সংরক্ষণ ও বিকাশের উপর স্মৃতি চারণ করেন তারা। স্মৃতিচারণ ও সবগুলো ইভেন্টে সভাপতিত্ব করেন বিটিভি এর মাধ্যমে ক্ষুদ্র নৃ গোষ্ঠীর জীবন ও সংস্কৃতি বিকাশ উদ্যোগ বনফুল থেকে লোক লোকালয়ের তিনযুগ পূর্তি উদযাপন কমিটির আহবায়ক ও বিশিষ্ট সাংস্কৃতিক সংগঠক এবং রাজশাহী বিভাগীয় ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠির কালাচারাল একাডেমির সংগীত প্রশিক্ষক মানুয়ের সরেন ও অনলাইন পোর্টাল দৈনিক সুপ্রভাত রাজশাহীর প্রকাশক ও সম্পাদক সাংবাদিক ফজলুল করিম বাবলু।

এ সময়ে রাজশাহী বিভাগীয় ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠির কালাচারাল একাডেমির সংগীত প্রশিক্ষক কবীর আহম্মেদ বিন্দু, সেঙ্গেল ব্যান্ডের সদস্য সুব্রত মার্ডি, আংচার সাংস্কৃতিক গোষ্ঠির পরিচালক সুচনা হেম্ব্রম, সমাজসেবী মনি স্কিু ও রিতা মুর্মুসহ অন্যান্য আদিবাসী জনগণ। স্মৃতিচারণ করতে যেয়ে তারা বলেন, আদিবাসীদের অনেক সংস্কৃতি হারিয়ে যেতে বসেছে। বিটিভি ৩৭ বছর ধরে এই অনুষ্ঠানের মাধ্যমে আদিবাসীদের বিভিন্ন সংস্কৃতি তুলে ধরছে। এতে করে বাংলাদেশের আদিবাসীদের সংস্কৃতি সারা বিশ্বের নিকট পরিচিত পেয়েছে বলে জানান তারা। শেষে সন্ধ্যা ৬টা থেকে দেশব্যাপি আদিবাসী সম্প্রদায়ের নেতৃবৃন্দ এ বিষয় নিয়ে ভার্চুয়াল আলোচনা করেন।

বরেন্দ্র বার্তা/ ফকবা/ নাসি

Close