শিরোনাম-২সাহিত্য ও সংস্কৃতি

চিত্রায়নে বর্ণমালা

হুমায়ূন সিরাজ

জলের শব্দেরা যেন সিঞ্চন ধ্বনির মত-বর্ণমালার কোন সুরের নন্দনতত্ত্ব। রূপতত্ত্বে তৈরি বাংলা ভাষার মত কোন ছন্দবন্ধ জল প্রপাতের কোন রূপ যেন মধুর কোন কাব্যে তৈরি কোন আলোচন। ফুলের সৌরভের মত প্রতিটি অক্ষরেরা যেন প্রতিশব্দে সৃষ্টি কোন মননের ভাষাতত্ত্ব। মুক্ত আকাশে বর্ণেরা যেন পাখির মত কোন মুক্ত বিহঙ্গের স্বাধীনতার কোন মুক্তি খুঁজে। যেন কোন রঙিন আলোকের মত রামধুন…

ভাব যেন কোন আকার ঈঙ্গিতের কোন সমষ্টিবদ্ধ শব্দের পর শব্দে তৈরি কোন গাথনির বাক্যতত্ত্ব। বাংলা আমাদের মাতৃভাষার ভাষাতত্ত্ব। রাষ্ট্র ভাষা বাংলা মোদের অহংকার…

বায়ান্নের একুশে যেন সপ্তর্ষিমন্ডলের কোন জিজ্ঞাসা?

প্লাটিনামের মত দামি অন্নেষার অক্ষরগুলো দিয়ে তৈরি বর্ণমালার। যেন স্বর্ণের শৃঙ্খলের কোন অলংকার। ছাত্র সমাজের আন্দোলন যেন আকাশের কোন স্বাতী কেতুর মত কোন তারারা চে-ফিডেলের মাথার টুপি মরিচিকার মত যেন প্রজ্জ্বলিত। কার্লমাক্সের কোন স্বাধিকার যেন নব আদর্শের লাল টক্টকে পতাকার কোন সূর্য্যরি মত শানিত শহীদ রফিক, শহীদ বরকতের স্বর্গের নব নক্ষত্রের আবাস।

দেশ রক্ষকের ডাকে আসে নতুন কোন স্বীকৃতি। এই পৃথিবীতে বাংলা ভাষার চেতনার কোন আদর্শ। যেন দেশে দেশে চিঠির মত কোন বাংলার সংস্কৃতি।

আদিপিতার কোন ভাষাতত্ত্বের রূপের কোন সংখ্যাতত্ত্বে যেন ই.ও.এফ দেখা যায়।

যখন ঈশ্বরের শপথে নব দিনের শুরু তখন অবিনশ্বর পৃথিবী গতিময়। কখনও দেবদূত বয়ে নিয়ে যায় বর্ণমালার প্রথম স্বরবর্ণ ‘অ’। নীল আকাশে সাদা মেঘের মেলায়ভেসে ভেসে আসে একুশের চেতনার স্বববর্ণ আ; আমাদের আন্দোলন…

এভাবে বায়ান্নের অস্পষ্ট চাঁদের আলোতে নব নর নাবীর কপালে দেবদূত এঁকে দিয়ে যায় “ ঁ ”।

কোন পূর্ণিমা চাঁদের আলোতে কোন মেঘদূতে যেন অভিভূত বাংলাভাষার গর্বের ইতিহাস।…

চেতনায় আজ অমর একুশে পথফুলের কোন সৌরভে হাস্যজ্জ্বল কোন সময়।

শহীদ মিনারের বেদীতে ফুলগুচ্ছের সমাহারে কখনও হঠাৎ মনে পড়ে বায়ান্নের একুশে ভাষা আন্দোলনের কথা। বিষন্ন হয়ে উঠে এই মন ১৪৪ ধারা ছিল যেন একটি বন্দি খাঁচা।…

দোয়েল পাখিটি ডানামেলে উড়ে যায় যেন কোন চেতনার আশা। শহীদদের লহিতে বাংলা আমাদের রাষ্ট্রভাষা।…

ফুলগুচ্ছগুলো যেন শহীদ মিনারের বেদিতে আশ্চর্য কোন উজ্জ্বল উপমা। আর আদর্শ লিপিতে বর্ণমালারা যেন কোন শব্দের সাজানো কোন অলংকারের সরমা। যমক যেন কোন একুশের চেতনা। …

সূর্য্যরি প্রস্থায়ারা যেন অধ্যাতিক কোন ডাকে প্রাচ্য থেকে প্রাচীতের প্রাণের ভাষাতত্বের রূপ। হৃদয়ের ফুলের বাগানে মনের দোলা যেন কোন একটি স্বরলিপি আর সৃষ্টির ধুমকেতু ফোয়ারার মত নক্ষত্রে মন্ডলে উল্কার কোন স্বারগম।…

তাই বাংলা ভাষা আমাদের মাতৃভাষা।
আর একুশ মানে চেতনা
একুশ মানে বাংলাভাষা
একুশ মানে আদর্শ
একুশ মানে সততা
একুশ মানে জীবনবোধ
একুশ মানে অ-মরি।…
আশ্বর্য ফুলগুচ্ছের প্রতিচ্ছবি
চিত্রায়াণে বর্ণমালা।।

Close