সাহিত্য ও সংস্কৃতি

হুমায়ূন সিরাজের কবিতা `ভালবাসার উৎসব’


বাঁধনের ফিতাতে বাঁশির সুরগুলোর পরশে
মেঘমালারা ঢেউয়েতে ভেসে ভেসে
পশ্চিম গগণ তলে সাওয়ালের ঈদের চাঁদ উঠে
জ্বলে জ্বলে নক্ষত্ররা অন্তরের আলোতে
মিথুন রাশিগুলো যেন অগ্নিশিখায় ঝরে
মিটিমিটি আলোয় বেহালার কোন বেতালি
সুরগুলো হৃদয়ে হারিয়ে


ঝিরিঝিরি কৃষ্টিতে আবছা জোসনায় পাখা মেলে
দালান ঘরের আসন তলে রোদ্দুরে লাল টিপের ভালবাসা
পিপাসার ছন্দে নেচে নেচে জ্বলে জ্বলে মুঠে মুঠে
স্মৃতিগুলো ষ্কাচর আঁকড়ে আঁকড়ে
রমজানের শেষে বোতলের পুরাতন শরবতগুলো,
নেশায় জুটে
রঙিন রঙিন তুলিগুলো ইজেলের পাড়ে
দৃশ্যপটে ‘ঈদমোবারক’ আঁকা
আত্মারা প্রেতাত্মার শঙ্কায়
নাচের আসরে সরু চাঁদ উঠে বাঁকা
রাত্রির অশরীরি জোসনায় ঢেউগুলো।
তপ্ত হাওয়ায় রঙে ফুটে উঠে।
উত্তলমুখী কোন চুম্বকের আকর্ষণে
লাল সবুজের পতাকার চিত্রে
বিজয়ের স্বরগুলো কারুকার্য্যের মত
প্রতিটি নকশায় ত্রিমাত্রিক জ্যোতিতে
আঁধারের স্বপ্নরা কোন আরসের পরশে
প্রেমের আলোকবর্তিকার মিত্রে
অহংগুলো স্থাপস্ত ছাউনিতে
হাওয়ায় হাওয়ায় উড়িয়ে নেয়া রাজ্যের দ্যুতি
সাজানো ঝাউপাতাগুলো
উৎসবের পানজাবি বেনারসীতে
বন্ধনের মৈত্রে
সংস্কৃতির কথা
কৃষ্টির ছোঁয়ার সাজে।
প্রাণের আবর্তনে।
নক্ষত্রের গতি।

Close