মহানগরশিরোনামসাহিত্য ও সংস্কৃতি

হাসান আজিজুল হকের শারীরিক অবস্থার উন্নতি

বরেন্দ্র বার্তা ডেস্ক : বরেণ্য কথাসাহিত্যিক হাসান আজিজুল হকের শারীরিক অবস্থার কিছুটা উন্নতি হয়েছে। তিনি এখন স্বাভাবিকভাবে নিঃশ্বাস নিতে পারছেন। আলাদা করে অক্সিজেন দেওয়ার প্রয়োজন হচ্ছে না। বর্তমানে তিনি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন।

নিজের বাবার শারীরিক অবস্থার সবশেষ এ তথ্য জানিয়েছেন হাসান আজিজুল হকের ছেলে এবং রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাণরসায়ন ও অণুপ্রাণবিজ্ঞান বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ইমতিয়াজ হাসান।

চিকিৎসকের বরাত দিয়ে তিনি জানিয়েছেন, তার বাবার শারীরিক সমস্যাগুলো উন্নতির দিকে। বিভিন্ন পরীক্ষার রিপোর্টগুলোও নরমাল। বর্তমানে লিভার ও কিডনির পরীক্ষা করছেন চিকিৎসকেরা। ছোটখাটো একটা হার্ট অ্যাটাক হয়েছিল। সেটা স্বাভাবিক হয়ে আসছে। নিউমোনিয়াও থেকে তিনি সেরে উঠছেন। তার শারীরিক অবস্থা এখন অনেক উন্নতির দিকে।

গত ১৬ আগস্ট সন্ধ্যায় বাবার অসুস্থতার কথা জানিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে একটি দীর্ঘ স্ট্যাটাস দেন ইমতিয়াজ হাসান।

এর দিন পাঁচেক পরই গত ২১ আগস্ট রাত সোয়া ৮টার দিকে হাসান আজিজুল হককে বিএসএমএমইউ হাসপাতালের কেবিন ব্লকের ২২০ নম্বর কেবিনে ভর্তি করা হয়। ওইদিনই সকালে রাজশাহী থেকে এয়ার অ্যাম্বুলেন্সে করে তাকে ঢাকায় আনা হয়েছিল।

হাসান আজিজুল হক ১৯৩৯ সালের ২ ফেব্রুয়ারি বর্তমান ভারতের পশ্চিমবঙ্গের বর্ধমান জেলার যবগ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। বর্তমানে তার বয়স ৮২ বছর। রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে ৩১ বছর শিক্ষকতার পর ২০০৪ সালে তিনি অবসর যান। জীবনের অধিকাংশ সময় তিনি রাজশাহীতেই কাটিয়েছেন।

১৯৭৩ সালে তিনি রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের দর্শন বিভাগে অধ্যাপক হিসেবে যোগ দেন। টানা ৩১ বছর ধরে বিশ্ববিদ্যালয়টিতে অধ্যাপনা করেছেন তিনি। বিশ্ববিদ্যালয় সংলগ্ন চৌদ্দপায় এলাকায় অবস্থিত ‘বিহাস’-এ বর্তমানে বাস খ্যাতিমান এ কথাসাহিত্যিকের।

বরেন্দ্র বার্তা/অপস
সুত্র: জাগো নিউজ

Close