মহানগরশিক্ষাঙ্গন বার্তাশিরোনাম-২

হল-ক্লাসে ফিরতে রাবি শিক্ষার্থীদের মানতে হবে ১০ নির্দেশনা

কামরুল হাসান অভি ,রাবি : করোনা সংক্রমণজনিত কারণে টানা দেড় বছর বন্ধ থাকার পর ১৭ অক্টোবর থেকে খুলছে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) হলগুলো। আর ২১ অক্টোবর থেকে চলবে সশরীরে ক্লাস। শিক্ষার্থীদের হলে অবস্থান এবং ক্লাসে অংশ নিতে ১০ নির্দেশনা অনুসরণের পরামর্শ দিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

সোমবার (১১ অক্টোবর) বিকেলে বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসংযোগ প্রশাসক অধ্যাপক ড. আজিজুর রহমান এসব নির্দেশনার কথা জানান।

নির্দেশনাগুলো হলো

১. অন্তত এক ডোজ টিকা গ্রহণ না করলে হলে অবস্থান বা শ্রেণিকক্ষে প্রবেশের অনুমতি দেওয়া হবে না।
২. যারা এখনো রেজিস্ট্রেশন করেনি তাদের হলে ওঠার বা ক্লাস শুরুর আগে রেজিস্ট্রেশন সম্পন্ন করতে হবে।
৩. টিকা গ্রহণ সনদের দুই কপি সঙ্গে নিয়ে আসতে হবে। আবাসিক শিক্ষার্থীর ক্ষেত্রে এক কপি হলে ও অনাবাসিক শিক্ষার্থীর ক্ষেত্রে বিভাগে এবং অন্য কপি অবশ্যই আইসিটি সেন্টারে জমা দিতে হবে।
৪. যেসব শিক্ষার্থী এখনো টিকা গ্রহণ করেনি কিন্তু সুরক্ষা অ্যাপে বা ইউজিসির ইউনিভ্যাকের মাধ্যমে রেজিস্ট্রেশন করেছে তাদের রেজিস্ট্রেশনের দুই কপি সঙ্গে নিয়ে আসতে হবে। আবাসিক শিক্ষার্থীর ক্ষেত্রে এক কপি হলে ও অনাবাসিক শিক্ষার্থীর ক্ষেত্রে বিভাগে এবং অন্য কপি আইসিটি সেন্টারে অবশ্যই জমা দিতে হবে।

৫. ১৭ থেকে ২২ অক্টোবর পর্যন্ত শহীদ সুখরঞ্জন সমাদ্দার ছাত্র-শিক্ষক সাংস্কৃতিক কেন্দ্রে (টিএসসিসি) করোনা টিকার প্রথম/দ্বিতীয় ডোজ দেওয়া হবে। প্রথম ডোজের ক্ষেত্রে রেজিস্ট্রেশনের কপি এবং দ্বিতীয় ডোজ গ্রহণের জন্য অবশ্যই প্রথম ডোজের প্রমাণপত্র সঙ্গে নিয়ে আসতে হবে।
৬. ক্যাম্পাসে, হলে বা ক্লাসে অবস্থানকালে সবাইকে নাক-মুখ ঢেকে মাস্ক ব্যবহার করতে হবে এবং সরকার নির্দেশিত অন্যান্য স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে।

৭. হলে বা ক্লাস কক্ষে প্রবেশের আগে সাবান দিয়ে হাত ধুয়ে বা স্যানিটাইজার দিয়ে হাত জীবাণুমুক্ত করতে হবে। এছাড়া হল/বিভাগে প্রবেশের সময় শরীরের তাপমাত্রা পরীক্ষা করা হবে।
৮. কোনো শিক্ষার্থীর করোনার লক্ষণ দেখা দিলে দ্রুত হল/বিভাগ কর্তৃপক্ষকে অথবা বিশ্ববিদ্যালয় চিকিৎসা কেন্দ্রকে অবহিত করতে হবে।

৯. হলে অবস্থানকালে কোনো শিক্ষার্থীর করোনার লক্ষণ দেখা দিলে তাকে হলে অথবা বিশ্ববিদ্যালয় চিকিৎসা কেন্দ্রে আইসোলেশন কক্ষে পৃথক রাখার ব্যবস্থা করা হয়েছে।
১০. ডেঙ্গু প্রতিরোধে সবাইকে আবশ্যিকভাবে মশারি টানিয়ে ঘুমাতে হবে। ক্যাম্পাসে কোভিড-১৯ ও ডেঙ্গু প্রতিরোধে জনসচেতনতা সৃষ্টির কার্যক্রম চলমান থাকবে।

কামরুল হাসান অভি
রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়
হল-ক্লাসে ফিরতে রাবি শিক্ষার্থীদের মানতে হবে ১০ নির্দেশনা
রাবি প্রতিনিধি:
করোনা সংক্রমণজনিত কারণে টানা দেড় বছর বন্ধ থাকার পর ১৭ অক্টোবর থেকে খুলছে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) হলগুলো। আর ২১ অক্টোবর থেকে চলবে সশরীরে ক্লাস। শিক্ষার্থীদের হলে অবস্থান এবং ক্লাসে অংশ নিতে ১০ নির্দেশনা অনুসরণের পরামর্শ দিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

সোমবার (১১ অক্টোবর) বিকেলে বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসংযোগ প্রশাসক অধ্যাপক ড. আজিজুর রহুপ্রুমান এসব নির্দেশনার কথা জানান।

নির্দেশনাগুলো হলো

১. অন্তত এক ডোজ টিকা গ্রহণ না করলে হলে অবস্থান বা শ্রেণিকক্ষে প্রবেশের অনুমতি দেওয়া হবে না।
২. যারা এখনো রেজিস্ট্রেশন করেনি তাদের হলে ওঠার বা ক্লাস শুরুর আগে রেজিস্ট্রেশন সম্পন্ন করতে হবে।
৩. টিকা গ্রহণ সনদের দুই কপি সঙ্গে নিয়ে আসতে হবে। আবাসিক শিক্ষার্থীর ক্ষেত্রে এক কপি হলে ও অনাবাসিক শিক্ষার্থীর ক্ষেত্রে বিভাগে এবং অন্য কপি অবশ্যই আইসিটি সেন্টারে জমা দিতে হবে।
৪. যেসব শিক্ষার্থী এখনো টিকা গ্রহণ করেনি কিন্তু সুরক্ষা অ্যাপে বা ইউজিসির ইউনিভ্যাকের মাধ্যমে রেজিস্ট্রেশন করেছে তাদের রেজিস্ট্রেশনের দুই কপি সঙ্গে নিয়ে আসতে হবে। আবাসিক শিক্ষার্থীর ক্ষেত্রে এক কপি হলে ও অনাবাসিক শিক্ষার্থীর ক্ষেত্রে বিভাগে এবং অন্য কপি আইসিটি সেন্টারে অবশ্যই জমা দিতে হবে।

৫. ১৭ থেকে ২২ অক্টোবর পর্যন্ত শহীদ সুখরঞ্জন সমাদ্দার ছাত্র-শিক্ষক সাংস্কৃতিক কেন্দ্রে (টিএসসিসি) করোনা টিকার প্রথম/দ্বিতীয় ডোজ দেওয়া হবে। প্রথম ডোজের ক্ষেত্রে রেজিস্ট্রেশনের কপি এবং দ্বিতীয় ডোজ গ্রহণের জন্য অবশ্যই প্রথম ডোজের প্রমাণপত্র সঙ্গে নিয়ে আসতে হবে।
৬. ক্যাম্পাসে, হলে বা ক্লাসে অবস্থানকালে সবাইকে নাক-মুখ ঢেকে মাস্ক ব্যবহার করতে হবে এবং সরকার নির্দেশিত অন্যান্য স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে।

৭. হলে বা ক্লাস কক্ষে প্রবেশের আগে সাবান দিয়ে হাত ধুয়ে বা স্যানিটাইজার দিয়ে হাত জীবাণুমুক্ত করতে হবে। এছাড়া হল/বিভাগে প্রবেশের সময় শরীরের তাপমাত্রা পরীক্ষা করা হবে।
৮. কোনো শিক্ষার্থীর করোনার লক্ষণ দেখা দিলে দ্রুত হল/বিভাগ কর্তৃপক্ষকে অথবা বিশ্ববিদ্যালয় চিকিৎসা কেন্দ্রকে অবহিত করতে হবে।

৯. হলে অবস্থানকালে কোনো শিক্ষার্থীর করোনার লক্ষণ দেখা দিলে তাকে হলে অথবা বিশ্ববিদ্যালয় চিকিৎসা কেন্দ্রে আইসোলেশন কক্ষে পৃথক রাখার ব্যবস্থা করা হয়েছে।
১০. ডেঙ্গু প্রতিরোধে সবাইকে আবশ্যিকভাবে মশারি টানিয়ে ঘুমাতে হবে। ক্যাম্পাসে কোভিড-১৯ ও ডেঙ্গু প্রতিরোধে জনসচেতনতা সৃষ্টির কার্যক্রম চলমান থাকবে।
বরেন্দ্র বার্তা/অপস

Close