রাবিতে প্রথম বর্ষে ক্লাস শুরু, এখনো ফাঁকা ৩৭৭ আসন -
মহানগরশিক্ষাঙ্গন বার্তাশিরোনাম

রাবিতে প্রথম বর্ষে ক্লাস শুরু, এখনো ফাঁকা ৩৭৭ আসন



কামরুল হাসান অভি ,রাবি: রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষের স্নাতক প্রথম বর্ষের ক্লাস শুরু হয়েছে। মঙ্গলবার (২১ ডিসেম্বর) সকাল ১০ টা থেকে বিশ্ববিদ্যালয়টির বিভিন্ন বিভাগে ভর্তি হওয়া নবীনদের নিয়ে পরিচিমূলক ক্লাস অনুষ্ঠিত হয়।

তবে এ সময় পর্যন্ত সব আসনের বিপরীতে শিক্ষার্থী পায়নি বিশ্ববিদ্যালয়টি। বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন অনুষদের ডিনদের সাথে কথা বলে জানা গেছে অন্তত ৩৭৭ টি আসনে এখনো কোনো শিক্ষার্থী ভর্তি হননি। এদের মধ্যে ‘এ’ ইউনিটে ১২৭ টি, ‘বি’ ইউনিটে ৯৫ টি এবং ‘সি’ ইউনিটে ১৫৫ টি আসন ফাঁকা রয়েছে।

ক্যাম্পাস ঘুরে দেখা গেছে প্রত্যেক বিভাগের শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা আলাদাভাবে রজনীগন্ধা, গোলাপফুল, কলম, ফাইল দিয়ে বরণ করে নিচ্ছে নবীন শিক্ষার্থীদের। এ সময় বিভাগীয় শিক্ষকরা নিজেদের পরিচিতিমূলকপর্ব এবং শিক্ষার্থীদের পরিচিতিপর্ব সহ বিভিন্ন বিষয়ে দিকনির্দেশনা এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের সব নিয়ম-শৃঙ্খলা মেনে চলতে নবীনদের প্রতি নির্দেশনা দেন।

বাংলাদেশের উত্তরাঞ্চলে অবস্থিত মতিহারের সবুজ চত্বর রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় যাকে প্রাচ্যের ক্যাম্বিজ বলা হয়। অনেকের স্বপ্ন থাকে মতিহারের সবুজ চত্বরে জায়গা দখল করে নেওয়ার কিন্তু সেই আসন অনেকেই পায়না। সেই আসনের হাসির ছোঁয়া লেগেছে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের চার হাজার স্বপ্নচারীর উদীপ্ত প্রাণে। সেই নবীন প্রাণের উদ্দীপনা ছুঁয়ে গেছে ৭৫৩ একর সবুজ মতিহার চত্বরে। নবীনদের পদ চারণায় প্রাণোচ্ছল হয়ে ওঠেছে রাবি প্যারিস রোড, জোহা চত্বর, কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার, কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগার চত্বর, চারুকলা, টুকিটাকি চত্বর, আমতলা, শেখ রাসেল চত্বর, শহীদ মিনার, কেন্দ্রিয় ক্যাফেটেরিয়া, মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতি বিজড়িত বদ্ধভূমিসহ বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিটি জায়গায়।

বিশ্ববিদ্যালয় জীবনের প্রথম দিনের অনুভূতি জানতে চাইলে লোক প্রশাসন বিভাগের নবীন শিক্ষার্থী সুমাইয়া মিম বলে, করোনা সবকিছু ধ্বংস করতে পারলে আমাদের স্বপ্ন ধ্বংস করতে পারেনি। আমার প্রত্যাশা ছিল অনেক সুন্দর একটা ক্যাম্পাস বড় একটা ক্যাম্পাস হবে। ক্যাম্পাস এসে দেখলাম, যেমন ভেবেছিলাম তেমনই আমাদের বিশ্ববিদ্যালয়টা। অনেক সাজানো আর সুন্দর ক্যাম্পাস। এমন একটা ক্যাম্পাস পেয়ে আমি সত্যি উচ্ছ্বসিত আর গর্বিত।

খুলনা থেকে আসা নবীন শিক্ষার্থী তালিব বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম দিনের অনুভূতি অন্য রকম। ভাষায় প্রকাশ করা যাবে না। যেমনটি ভেবেছিলাম তার চেয়ে অনেক আনন্দের। আশা করি, বিশ্ববিদ্যালয় জীবনের বাকি দিনগুলোও এভাবে সহপাঠী, বড় ভাই-বোনদের সঙ্গে আনন্দে কাটবে।

জামালপুর থেকে পড়তে আসা পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগের এক নবীন শিক্ষার্থী বলেন , “অনেক স্বপ্ন ছিলো রাজশাহীতে পড়বো কারণ এটা একটা ঐতিহাসিক প্রতিষ্ঠান এর অনেক সুনাম রয়েছে। আর রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হতে এসেই রাবি ক্যাম্পাসের সৌন্দর্যে আমি মুগ্ধ তখন থেকেই ভাবা রাজশাহীতেই পড়বো এখন আমি নিজেকে সৌভাগ্যবান মনে করছি রাবির শিক্ষার্থী হতে পেরে।”

ফাঁকা আসনের বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের কলা অনুষদের ডিন অধ্যাপক ফজলুল হক বলেন, কলা অনুষদের বিভিন্ন বিভাগে অনেক আসন ফাঁকা রয়েছে। অনেকে ভর্তি বাতিল করছেন। অনেকেই বিভাগর পরিবর্তন করছেন। আশাকরি ১৫ জানুয়ারির মধ্যে সব শেষ হবে “

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসংযোগ প্রশাসক ড. আজিজুর রহমান বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগে আজ প্রথম বর্ষের ক্লাস শুরু হয়েছে। শিক্ষার্থীদের তাদের বিভাগ থেকে দেয়া রুটিন অনুযায়ী বিভাগগুলো ক্লাস নেবে। তবে এখনও অনেকগুলো আসন খালি থাকা সাপেক্ষে আগামী বছরের ১৫ জানুয়ারি পর্যন্ত ভর্তির কার্যক্রম চলমান থাকবে।”

গত ৪ থেকে ৬ অক্টোবর রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০২০-২১ সেশনের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। যেখানে পাস নম্বর নির্ধারিত ছিল ৪০। মোট তিনটি ইউনিটে ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নেয় এক লাখ ২৭ হাজার ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থী।
বরেন্দ্র বার্তা/অপস

Close