বিনোদন

দেশে মুক্তি পেল একসঙ্গে তিন বিদেশি ছবি

বিনোদন ডেক্স :  বিদেশি ছবি যে দেশে মুক্তি পায় না, তেমন বিষয় না। তবে কাকতাল হলেও সত্যি, এ সপ্তাহে নতুন ছবি মুক্তির তালিকায় দেশের একটি ছবিও নেই। আজ (২৭ জুলাই) একসঙ্গে মুক্তি পেল বিদেশের তিনটি ছবি!এরমধ্যে আছে ঢাকাই কিং খানের একটি টলিউড ছবি—দেশাত্মবোধের জায়গা থেকে সান্ত্বনা আপাতত এটুকুই।
অন্য দুটি ছবি হলিউডের।
এরমধ্যে শতাধিক হলে মুক্তি পাচ্ছে শাকিব খানের ‌‘ভাইজান এলো রে’। অপর দুটি হলো- ডেনজেল ওয়াশিংটনের ‘দ্য ইকুয়ালাইজার- টু’ ও টম ক্রুজের ‘মিশন: ইমপসিবল-ফলআউট’। হলিউডের ছবি দুটি যথাক্রমে রাজধানীর স্টার সিনেপ্লেক্স ও ব্লকব্লাস্টার সিনেমাসে মুক্তি পেয়েছে।
শাকিব খানের ‘ভাইজান এলো রে’ সারাদেশের ১০৯টি সিনেমা হলে একযোগে প্রদর্শিত হবে বলে নিশ্চিত করেছে বাংলাদেশে ছবিটির আমদানিকারক প্রতিষ্ঠান ‘এন ইউ আহমেদ ট্রেডার্স’। এটি সাফটা চুক্তির আওতায় এনেছে প্রতিষ্ঠানটি।
প্রথমে যৌথ প্রযোজনায় নির্মাণের কথা হলেও পরে এটি ভারতীয় প্রযোজনায় তৈরি হয়।

বিদেশি ছবি যে দেশে মুক্তি পায় না, তেমন বিষয় না। তবে কাকতাল হলেও সত্যি, এ সপ্তাহে নতুন ছবি মুক্তির তালিকায় দেশের একটি ছবিও নেই। আজ (২৭ জুলাই) একসঙ্গে মুক্তি পেল বিদেশের তিনটি ছবি!
এরমধ্যে আছে ঢাকাই কিং খানের একটি টলিউড ছবি—দেশাত্মবোধের জায়গা থেকে সান্ত্বনা আপাতত এটুকুই।
অন্য দুটি ছবি হলিউডের।
এরমধ্যে শতাধিক হলে মুক্তি পাচ্ছে শাকিব খানের ‌‘ভাইজান এলো রে’। অপর দুটি হলো- ডেনজেল ওয়াশিংটনের ‘দ্য ইকুয়ালাইজার- টু’ ও টম ক্রুজের ‘মিশন: ইমপসিবল-ফলআউট’। হলিউডের ছবি দুটি যথাক্রমে রাজধানীর স্টার সিনেপ্লেক্স ও ব্লকব্লাস্টার সিনেমাসে মুক্তি পেয়েছে।
শাকিব খানের ‘ভাইজান এলো রে’ সারাদেশের ১০৯টি সিনেমা হলে একযোগে প্রদর্শিত হবে বলে নিশ্চিত করেছে বাংলাদেশে ছবিটির আমদানিকারক প্রতিষ্ঠান ‘এন ইউ আহমেদ ট্রেডার্স’। এটি সাফটা চুক্তির আওতায় এনেছে প্রতিষ্ঠানটি।
প্রথমে যৌথ প্রযোজনায় নির্মাণের কথা হলেও পরে এটি ভারতীয় প্রযোজনায় তৈরি হয়।

ভারতীয় প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান এসকে মুভিজ প্রযোজিত ছবিটি নির্মাণ করেছেন কলকাতার নির্মাতা জয়দীপ মুখার্জি। এতে ভাইজান চরিত্রে অভিনয় করেছেন শাকিব খান। তার দুই নায়িকা কলকাতার পায়েল ও শ্রাবন্তী। ছবিতে আরও অভিনয় করেছেন ভারতের রজতাভ দত্ত, বিশ্বনাথ, শান্তিলাল মুখার্জি ও বাংলাদেশের দীপা খন্দকারসহ অনেকেই। এর কাজ হয়েছে কলকাতা ও লন্ডনে।

কলকাতায় ছবিটি গত রোজার ঈদে মুক্তি পায়।
এদিকে আশির দশকের জনপ্রিয় টিভি সিরিজ ‘দ্য ইকুয়ালাইজার’-এর ওপর ভিত্তি করে ‘দ্য ইকুয়ালাইজার-টু’ নির্মাণ করেছেন অ্যান্টোইন ফুকুয়া। প্রথম ছবির সাফল্যের পথ ধরে এবারের ছবিটিও পরিচালনার ভার পড়ে তার কাঁধে।
এই পর্বে ক্লোয়ি গ্রেস মোরেজের মৃত্যুর প্রতিশোধ নিতে আসবেন ডেনজেল ওয়াশিংটন। তিনি ছাড়াও এ ছবিতে অভিনয় করেছেন অস্কারজয়ী অভিনেত্রী মেলিসা লিও। আরও আছেন অ্যাশটন স্যান্ডার্স, বিল পালম্যান, পেড্রো পাসক্যালের মতো অভিনয় শিল্পীরা। তাই সাফল্যের পথে আরও একটি মাইলফলক স্পর্শ করতে মুখিয়ে আছেন পরিচালক অ্যান্টোইন ফুকুয়া।

অন্যদিকে ‘মিশন: ইমপসিবল-ফলআউট’ ছবির কাজ করতে গিয়ে গত বছর গোড়ালিতে চোট পান টম ক্রুজ। এ কারণে শুটিং স্থগিত ছিল অনেকদিন। এরপর সব গুছিয়ে ছবিটি আজ (২৭ জুলাই) মুক্তি পেয়েছে।
সিরিজের আগের পর্ব ‘মিশন: ইমপসিবল-রোগ নেশন’-এর মতো এবারও পরিচালনার দায়িত্বে আছেন ক্রিস্টোফার ম্যাককোয়ারি।
আগের পর্বের তারকা রেবেকা ফার্গুসন, সিমন পেগ, ভিং র‌্যামস, শন হ্যারিস, অ্যালেক ব্যাল্ডউইন এবারও থাকছেন। নতুন যুক্ত হয়েছেন হেনরি ক্যাভিল, ভ্যানেসা কার্বি, অ্যাঞ্জেলা ব্যাসেট ও সিয়ান ব্রুক। ফিরেছেন তৃতীয় পর্বের অভিনেত্রী মিশেল মোনাহান।
এবারই প্রথম এ ফ্রাঞ্চাইজির কোনও ছবি দেখা যাবে থ্রিডিতে।
ভারতীয় প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান এসকে মুভিজ প্রযোজিত ছবিটি নির্মাণ করেছেন কলকাতার নির্মাতা জয়দীপ মুখার্জি। এতে ভাইজান চরিত্রে অভিনয় করেছেন শাকিব খান। তার দুই নায়িকা কলকাতার পায়েল ও শ্রাবন্তী। ছবিতে আরও অভিনয় করেছেন ভারতের রজতাভ দত্ত, বিশ্বনাথ, শান্তিলাল মুখার্জি ও বাংলাদেশের দীপা খন্দকারসহ অনেকেই। এর কাজ হয়েছে কলকাতা ও লন্ডনে।

কলকাতায় ছবিটি গত রোজার ঈদে মুক্তি পায়।
এদিকে আশির দশকের জনপ্রিয় টিভি সিরিজ ‘দ্য ইকুয়ালাইজার’-এর ওপর ভিত্তি করে ‘দ্য ইকুয়ালাইজার-টু’ নির্মাণ করেছেন অ্যান্টোইন ফুকুয়া। প্রথম ছবির সাফল্যের পথ ধরে এবারের ছবিটিও পরিচালনার ভার পড়ে তার কাঁধে।
এই পর্বে ক্লোয়ি গ্রেস মোরেজের মৃত্যুর প্রতিশোধ নিতে আসবেন ডেনজেল ওয়াশিংটন। তিনি ছাড়াও এ ছবিতে অভিনয় করেছেন অস্কারজয়ী অভিনেত্রী মেলিসা লিও। আরও আছেন অ্যাশটন স্যান্ডার্স, বিল পালম্যান, পেড্রো পাসক্যালের মতো অভিনয় শিল্পীরা। তাই সাফল্যের পথে আরও একটি মাইলফলক স্পর্শ করতে মুখিয়ে আছেন পরিচালক অ্যান্টোইন ফুকুয়া।
ছবির প্রথম পর্বটি ছিল ১৯৯৬ সালে। ‘মিশন: ইমপসিবল’ নামের এ ছবিতে আইএমএফ (ইমপসিবল মিশন ফোর্স) সদস্য ইথান হান্ট চরিত্রে প্রথমবার অভিনয় করেন টম ক্রুজ। ২০১৫ সালে মুক্তি পায় এ সিরিজের পঞ্চম পর্ব ‘মিশন: ইমপসিবল-রোগ নেশন’। অন্য ছবিগুলো হলো ‘মিশন: ইমপসিবল টু’ (২০০০), ‘মিশন: ইমপসিবল থ্রি’ (২০০৬), ‘মিশন: ইমপসিবল-গোস্ট প্রটোকল’ (২০১১)। বরেন্দ্র বার্তা/অপস

Close